আরও এক ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে মারল ইসরায়েল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪৭ পিএম, ১৬ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৫:৫৬ পিএম, ১৬ জুন ২০২১

আবারও এক ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে হত্যা করেছে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী। ফিলিস্তিনি গণমাধ্যমে জানানো হয়েছে, বুধবার ইসরায়েলি সেনাদের হাতে নিহত ওই নারীর নাম মাই আফানাহ। তিনি মেডিক্যালের শিক্ষার্থী, বয়স ২৯ বছর। ওই নারী আবু দিসের বাসিন্দা।

ইসরায়েলি বাহিনীর দাবি, ওই নারী ইসরায়েলি সেনাদের একটি দলকে নিজের গাড়ি দিয়ে চাপা দেয়ার চেষ্টা করেন। তাকে গুলি করার পর তিনি রক্তাক্ত অবস্থায় ঘটনাস্থলেই পড়ে ছিলেন এবং সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

ইসরায়েলি বাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ওই নারী ইসরায়েলি সেনাদের ওপর গাড়ি চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করায় তাকে গুলি করা হয়েছে। তার কাছে একটি ছুরিও ছিল। জেরুজালেমের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় হিজমা শহরের কাছে এই ঘটনা ঘটেছে।

ইসরায়েলি গণমাধ্যমের দেয়া খবর অনুযায়ী, এই ঘটনায় এক ইসরায়েলি সেনা সামান্য আহত হয়েছে। অপরদিকে ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই নারী গুলির আঘাতেই নিহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনি গণমাধ্যম বলছে, ওই নারী গুলিবিদ্ধ হওয়ার পরও ঘটনাস্থলে কোনো অ্যাম্বুলেন্স আসেনি।

নিহত মাই আফানাহ

নিহত মাই আফানাহ

গত কয়েক মাসে ইসরায়েলি বাহিনী এভাবে ডজনখানেক ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করেছে। মাত্র চারদিন আগেই অবরুদ্ধ পশ্চিম তীরে বিক্ষোভরতদের ওপর ইসরায়েলি সেনাদের চালানো গুলিতে এক কিশোর নিহত হয়।

মোহাম্মাদ সাইদ হামায়েল নামে ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোর বেইতা এলাকায় অনুষ্ঠিত এক বিক্ষোভে নিহত হয়েছে। নিকটবর্তী এলাকায় ফিলিস্তিনি জমিতে অবৈধ ইহুদি স্থাপনা সম্প্রসারণের প্রতিবাদে সেখানে জড়ো হলে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় আরও ছয় ফিলিস্তিনি আহত হয়েছে।

এদিকে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় আবারও বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। বুধবার ভোরে এ হামলা চালায় দখলদার বাহিনী। ইসরায়েলের দাবি, ফিলিস্তিন থেকে আগুন বেলুন ছোড়ার পাল্টা জবাবে এ হামলা চালায় তারা। তবে এ হামলায় এখন পর্যন্ত হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

পরে এক বিবৃতিতে ইসরায়েল সেনাবাহিনী জানায়, গাজা সীমান্ত থেকে অন্তত ২০টি আগুন বেলুন ছোড়া হয় ইসরায়েলে। এর প্রতিবাদে এ হামলা চালায় তারা। দখলদার বাহিনীর দাবি, হামাসকে লক্ষ্য করে তারা হামলা চালিয়েছে।

এর আগে গত ২১ মে টানা ১১ দিনের সংঘাতের পর যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় ইসরায়েল ও হামাস। ওই সংঘাতে প্রায় ২৫৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়। এর মধ্যে ৬৬ জনই শিশু। অপরদিকে দুই হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছে। এছাড়া ইসরায়েলে রকেট হামলায় ১২ জন নিহত হয়েছে। তবে হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই সাধারণ নাগরিক।

টিটিএন/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]