টিআরপি কেলেঙ্কারিতে আরও ফাঁসলেন অর্ণব গোস্বামী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৫ পিএম, ২৪ জুন ২০২১

টিআরপি কেলেঙ্কারিতে আরও শক্তপোক্তভাবে ফাঁসলেন ভারতের সাংবাদিক-সম্পাদক অর্ণব গোস্বামী। সম্প্রতি পেশ করা সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটেও তার বিরুদ্ধে বড়ধরনের জালিয়াতির অভিযোগ এনেছে মুম্বাই পুলিশ। অর্ণবের পাশাপাশি তার চ্যানেলের মূল কোম্পানির আরও চারজনে নাম রয়েছে ১ হাজার ৯১২ পৃষ্ঠার চার্জশিটে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, এর আগে একটি বিশেষ চ্যানেলকে সুবিধা দিতে টেলিভিশন রেটিং পয়েন্টে (টিআরপি) হেরফের করার অভিযোগে ভারতের ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিলের (বিএআরসি) সাবেক প্রধান পার্থ দাশগুপ্তকে ‘মূল অভিযুক্ত’ উল্লেখ করে চার্জশিট দিয়েছিল পুলিশ। এবার সেখানে রিপাবলিক টিভির এডিটর-ইন-চিফ অর্ণব, প্রিয়া মুখোপাধ্যায়, শিবা সুন্দরম এবং শিবেন্দু মুলেলকরসহ মোট ২২ জনের নাম উঠেছে।

ক্রাইম ব্রাঞ্চ সূত্রে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, পার্থের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনের কথা স্বীকার করেছেন অর্ণব। চার্জশিটে এর উল্লেখ রয়েছে। ব্যক্তিগত সম্পর্কের খাতিরে পার্থ অর্ণবের কাছে বিএআরসির গোপন তথ্য ফাঁস করেছিলেন বলে স্পষ্ট ইঙ্গিত রয়েছে সেই কথোপকথনে।

জানা গেছে, প্রতিপক্ষ চ্যানেলের (টাইমস নাউ) টিআরপি থেকে রিপাবলিক টিভির টিআরপি বেশি দেখাতে পার্থের সঙ্গে হাত মিলিয়েছিলেন অর্ণব। এতে টাইমস নাউয়ের প্রায় ৪৩১ কোটি রুপি ক্ষতি হয়েছে।

চার্জশিট অনুসারে, এই ষড়যন্ত্রের জেরে টিআরপিতে এক নম্বরে উঠে আসে রিপাবলিক টিভি। আর এই কাজের জন্য অর্ণবের কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ নিয়েছিলেন পার্থ।

টিআরপিতে ওপরে উঠতে গিয়ে রিপাবলিক টিভি টেলিকম রেগুলেটরি অথোরিটি অব ইন্ডিয়ার (টিআরএআই) বেঁধে দেয়া নিয়ম ভেঙেছে বলে চার্জশিটে উল্লেখ করেছে পুলিশ। বিষয়টি অর্ণবের তত্ত্বাবধানে হয়েছে, আর চ্যানেলটির সিওও প্রিয়া মুখোপাধ্যায়ের হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনে এর ইঙ্গিত মিলেছে।

শুধু পার্থই নন, টিআরপিতে নিজের চ্যানেলকে শীর্ষে দেখাতে সংশ্লিষ্ট মাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত একাধিক ব্যক্তিকে অর্ণব ঘুষ দিয়েছেন বলে চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে।

অর্ণব গোস্বামী অবশ্য শুরু থেকেই এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তার দাবি, ব্যক্তিগত ক্ষোভ থেকে মুম্বাইয়ের পুলিশ কমিশনার (তৎকালীন) পরমবীর সিং তাকে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা, এই সময়

কেএএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]