অর্ধেকের বেশি মানুষকে ভ্যাকসিন দিয়েছে জার্মানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০০ পিএম, ২৮ জুলাই ২০২১

জার্মানির অর্ধেকের বেশি মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেনস স্পান বুধবার এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, তার দেশের অর্ধেকের বেশি মানুষ ভ্যাকসিনের দুই ডোজ গ্রহণ করেছেন। বিশ্বের অনেক দেশেই ভ্যাকসিন কার্যক্রম এখনও ধীর গতিতেই চলছে। কিন্তু জার্মানি সেক্ষেত্রে অনেকটাই এগিয়ে আছে।

এক টুইট বার্তায় স্পান বলেন, জার্মানিতে ইতোমধ্যেই ৪ কোটি ১৮ লাখ মানুষ সম্পূর্ণ সুরক্ষা নিশ্চিত করেছেন। অর্থাৎ তারা ভ্যাকসিনের দু'টি ডোজই গ্রহন করেছেন। অপরদিকে, ভ্যাকসিনের একটি ডোজ গ্রহণ করেছেন ৬১ দশমিক ১ ভাগ মানুষ।
তিনি বলেন, যত বেশি সংখ্যক মানুষ ভ্যাকসিন নেবেন তত বেশি আমরা নিরাপদ থাকতে পারব।

তবে গত কয়েক সপ্তাহে ভ্যাকসিন কার্যক্রম কিছুটা ধীর গতি হয়ে গেছে। এর মধ্যেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে দেশটিতে করোনার চতুর্থ ঢেউ আঘাত হানতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর জার্মানির সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে আরও বেশি লোকজনকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনাটাই এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। সংক্রমণের গতি বাড়তে থাকায় ভ্যাকসিনের ওপরই বেশি জোর দেয়া হচ্ছে।

ইউরোপের অন্যান্য দেশ যেমন-ফ্রান্স এবং গ্রিসের বেশ কিছু স্থানে লোকজনের জন্য ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে জার্মানিতে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা এখনও আনা হয়নি।

গত সপ্তাহে সংক্রমণের গতি রোধে লোকজনকে ভ্যাকসিন গ্রহণের আহ্বান জানান জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেল। তিনি বলেন, প্রতিটি ভ্যাকসিন আমাদের স্বাভাবিক জীবন-যাপনে ফিরে যাওয়ার একটি করে ছোট ধাপ। কর্মকর্তাদের মতে, ভ্যাকসিন নেয়া লোকজন ভ্যাকসিন না নেয়া লোকজনের চেয়ে অনেক ক্ষেত্রেই বেশি স্বাধীন।

বুধবার সরকারি হিসাব অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় জার্মানিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭৬৮। দেশটির রবার্ট কোচ ইন্সটিটিউট পাবলিক হেলথ এজেন্সির তথ্য অনুযায়ী, জার্মানিতে শনাক্ত হওয়া নতুন সংক্রমণের ৮০ ভাগের বেশিই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট।

টিটিএন/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]