সরকারের ‘সমালোচনা’ করায় চীনে ব্যবসায়ীর ১৮ বছরের জেল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২৭ এএম, ২৯ জুলাই ২০২১

চীনে এক বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ীকে ১৮ বছরের জেল দিয়েছে সরকার। সাজাপ্রাপ্ত ব্যবসায়ী সান দাওয়ের (৬৭) বিরুদ্ধে ‘বিবাদে জড়ানো এবং উত্তেজনা উস্কে’ দেয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে এই সাজা দেয়া হয়েছে বলে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। এ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে জমি দখল, সরকারি স্থাপনায় হামলার জন্য লোক জমায়েত এবং সরকারি কর্মকর্তাদের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

১৮ বছর সাজার পাশাপাশি তাকে ৩ দশমিক ১১ মিলিয়ন ইয়ান অর্থদণ্ডও দেয়া হয়েছে বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে।

চীনে স্পষ্টভাষী করপোরেট কর্তাদের সাজার সর্বশেষ উদাহরণ হলেন দেশটির সবচেয়ে বড় বেসরকারি কৃষি খাতের ব্যবসায়ী হুবেই প্রদেশের সান দাও। এর আগেও তিনি বিভিন্ন সময়ে মানবাধিকার এবং রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সমালোচনা করেছেন।

সরকার পরিচালিত একটি ফার্মের সঙ্গে জমি সংক্রান্ত ঝামেলার জেরে গত বছর সান দাওকে আটক করা হয়। সেসময় তার ২০ আত্মীয় ও ব্যবসায়ী সহযোগীকেও আটক করা হয়। সেসময় সান দাও বলেন, ‘ওই ঘটনায় পুলিশের সঙ্গে ঝামেলায় তার বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হন।’

‘অবৈধভাবে তহবিল সংগ্রহের’ অভিযোগে ২০০৩ সালেও তাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়। তবে অধিকারকর্মী ও দেশটির জনগণের চাপে ওই মামলা থেকে রেহাই পান তিনি।

বলা হয়ে থাকে চীনের ভিন্নমতাবলম্বী রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সঙ্গে সানের যোগযোগ রয়েছে। অতীতে বিভিন্ন সময়ে তিনি প্রান্তিক পর্যায়ে সরকারের নীতির সমালোচনা করেছেন। ২০১৯ সালে আফ্রিকান সোয়াইন ফ্লুর বিস্তারের সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রকাশ্যে চীনা সরকারের সমালোচনাকারীদের মধ্যে একজন তিনি। ওই সময়ে তার কোম্পানি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে দেশটির শিল্পেও তা ব্যাপক প্রভাব ফেলে।

তবে তার বিরুদ্ধে আনা অনেক অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ‘নিজেকে কমিউনিস্ট পার্টির সক্রিয় সদস্য’ দাবি করা এই ব্যবসায়ী। তবে কিছু ভুলের কথা স্বীকারও করেছেন তিনি। এর মধ্যে রয়েছে অনলাইনে বার্তা পাঠানো। নিজের ওপর দায় নিয়ে অন্যদের মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ইএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - jagofea[email protected]