‘অন্য দলে যাব না’ লিখেও মুছে ফেললেন বাবুল!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৩৭ পিএম, ৩১ জুলাই ২০২১

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিয়ে রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়। শনিবার এক ফেসবুক পোস্টে তিনি বলেন ‘চললাম। বিদায়!’। অন্য দলে যাবেন না এমনটা স্ট্যাটাসে লিখলেও পরে ‘অন্য দলে যাব না’ লাইন মুছে ফেলেন তিনি। আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

২০১৪ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়ে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে ভারতে বিজেপির যে সরকার গঠিত হয়, সেখানে ছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। বাবুল সুপ্রিয়কে প্রতিমন্ত্রী করেন নরেন্দ্র মোদি। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনেও জয়ী হয়ে মন্ত্রিসভায় নিজের আসন ধরে রাখেন বাবুল সুপ্রিয়। ৮ জুলাই নরেন্দ্র মোদি মন্ত্রিসভায় যে রদবদল করেন, সেখানে বাদ পড়া ব্যক্তিদের তালিকায় আছেন বাবুল সুপ্রিয়।

আকস্মিক তার এমন ঘোষণায় কেউ বলছেন, মন্ত্রিসভার পুনর্গঠনে ঠাঁই না পাওয়ায় তিনি মনঃকষ্টে রাজনীতি ছাড়ছেন। তবে বাবুল সুপ্রিয় বলেন, তিনি আর রাজনীতিতে থাকতে চান না। এবার তিনি মন দেবেন সমাজসেবায়। বাবুল সুপ্রিয় বলেন, ‘সাত বছর তো ছিলাম। এবার বিদায়ের পালা।’

তবে তিনি এ কথাও বলেন, বিজেপি ছাড়লেও অন্য কোনো দলে যোগ দিচ্ছেন না। তা ছাড়া অন্য কোনো দল তাকে যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ জানায়নি। ফেসবুক পোস্টে তিনি বলেন, ‘আমি আমার মতো করে বলছি। চললাম।’ কিন্তু নিজের ফেসবুক পোস্ট থেকে এ বার এই অংশটি সরিয়ে ফেলেন কয়েক ঘণ্টা পর। আর তাতেই বিজেপি-বিরোধী শিবিরে তার যাওয়া নিয়ে নতুন করে জল্পনা শুরু হয়েছে।

২০১৪ সালে তিনি প্রথম বর্ধমানের আসানসোল আসনে জয়ী হন। ২০১৯ সালে আবার তিনি একই আসন থেকে জয় পান। তবে এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি তাকে টালিগঞ্জ আসনে বিধায়ক পদে প্রার্থী করে। সেখানে হেরে যান তিনি। গত ৮ জুলাই ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা পুনর্গঠনের সময় বাদ পড়ে যান বাবুল সুপ্রিয়।

এসএনআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]