ফিলিস্তিন ছাড়তে ইসরায়েলকে এক বছরের সময় দিলেন মাহমুদ আব্বাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০২ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

ফিলিস্তিনের দখলকৃত অঞ্চল ছাড়তে ইসরায়েলকে এক বছরের সময় দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। যদি ইসরায়েল এতে ব্যর্থ হয় তাহলে তাদের স্বীকৃতি প্রত্যাহারেরও হুমকি দিয়েছেন তিনি। শুক্রবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভার্চ্যুয়াল বক্তব্যের সময় ইসরায়েলের বিরুদ্ধে এই হুঁশিয়ারি দেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট।

তিন দশকের বেশি সময় ধরে ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিনের মধ্যে শান্তি প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। মাহমুদ আব্বাস বলেন, যদি ফিলিস্তিনের অধিকৃত অঞ্চল ছেড়ে যেতে ইসরায়েল অস্বীকৃতি জানায় তবে তিনি আর ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেবেন না। অধিকৃত ওই অঞ্চলে স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায় ফিলিস্তিন।

মাহমুদ আব্বাস বলেন, আমাদের অবশ্যই বলা উচিত যে, দখলদার ইসরায়েলকে আগামী এক বছরের মধ্যে পূর্ব জেরুজালেমসহ অন্যান্য দখলকৃত অঞ্চল ছেড়ে যেতে হবে। ১৯৬৭ সালে ওই অঞ্চল দখল করে নেয় ইসরায়েল।

যদি তারা এটা না করে তবে ১৯৬৭ সালের সীমান্ত চুক্তি অনুযায়ী, ইসরায়েলকে কেন স্বীকৃতি দেওয়া হবে সেই প্রশ্নও করেছেন তিনি। জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেসকে আন্তর্জাতিক শান্তি সম্মেলনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন মাহমুদ আব্বাস।

জাতিসংঘের রেজুলেশন অনুসারে, ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের বিষয়ে চূড়ান্ত সমাধানে পৌঁছাতে বছরব্যাপী কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের ভূমি দখলের বৈধতার বিষয়ে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে যেতে প্রস্তুত রয়েছেন ফিলিস্তিনিরা। শান্তিপূর্ণ প্রক্রিয়ায় দ্বি-রাষ্ট্র সমস্যা সমাধানের চেষ্টা বছরের পর বছর অচল হয়ে রয়েছে।

১৯৬৭ সালের যুদ্ধে পশ্চিম তীর, পূর্ব জেরুজালেম এবং গাজা দখল করে নেয় ইসরায়েল। ওই অঞ্চলগুলো এখনও অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে তারা। ১৯৯৩ সালে অসলো চুক্তি অনুযায়ী, ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেয় ফিলিস্তিন। দুই পক্ষের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে একে একটি যুগান্তকারী মুহূর্ত বলে উল্লেখ করা হয়।

টিটিএন/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]