‘অপরাধীদের সতর্ক করতে’ আফগানিস্তানের রাস্তায় ঝোলানো হলো মরদেহ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৬ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

আফগানিস্তানের ক্ষমতা নেওয়া সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান চারটি মরদেহ আফগানিস্তানের হেরাত শহরের রাস্তার মোড়ে ঝুলিয়ে রেখেছে। চারজন সন্দেহভাজন অপহরণকারীকে গুলি করে হত্যার পরে তাদের মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা। খবর: বিবিসি।

তালেবানের একজন নেতা মৃত্যুদণ্ড এবং অঙ্গহানির মতো কঠোর শাস্তি আবার শুরু করার হুঁশিয়ারি দেওয়ার একদিন পর এই ঘটনা ঘটলো।

স্থানীয় এক কর্মকর্তা বলেন, একজন ব্যবসায়ী এবং তার ছেলেকে জিম্মি করার অভিযোগের পর বন্দুকযুদ্ধে ওই ব্যক্তিরা নিহত হন।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, শহরের কেন্দ্রে একটি ক্রেন থেকে একটি মৃতদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়। অন্য তিনটি মরদেহ অন্যত্র ঝোলানো হয়।

হেরাতের ডেপুটি গভর্নর মৌলভী শাইর বলেন, অপহরণের মতো ঘটনা যাতে আর না ঘটে তার জন্যই মৃতদেহগুলো এভাবে ঝুলিয়ে প্রদর্শন করা হয়েছে। একজন ব্যবসায়ী এবং তার ছেলেকে অপহরণের খবর পেয়ে তালেবান সদস্যরা তাদের গুলি করে হত্যা করে। পরে ওই ব্যবসায়ী ও তার ছেলেকে মুক্ত করা হয়।

afgan1

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা গেছে, একটি পিকআপের পেছনে রক্তাক্ত দেহ দেখা যাচ্ছে।

আরেকটি ভিডিওতে দেখা গেছে একজন ব্যক্তিকে ক্রেন থেকে ঝুলিয়ে দেওয়ার পর তার বুকে একটি লেখা হয়েছে- ‘অপহরণকারীদের এভাবে শাস্তি দেওয়া হবে।’

গত ১৫ অগাস্ট আফগানিস্তানে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে তালেবান তাদের আগের শাসনামলের তুলনায় কিছুটা নমনীয় শাসনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছে। তবে এরই মধ্যে দেশজুড়ে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অসংখ্য ঘটনার খবর পাওয়া গেছে।

এর আগে আগস্ট মাসে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছিল, নির্যাতিত হাজারা সংখ্যালঘুদের নয়জন সদস্যের হত্যাকাণ্ডের পেছনে তালেবান যোদ্ধারা ছিল।

এমএইচআর/এমএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]