প্যানডোরা পেপারস: পাকিস্তানিদের বিষয়ে তদন্তের প্রতিশ্রুতি ইমরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:১৯ পিএম, ০৪ অক্টোবর ২০২১

প্যানডোরা পেপারসে নাম আসা নাগরিকদের বিষয়ে তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ফাঁস হওয়া নথিতে ইমরান খানের মন্ত্রিসভার সদস্যসহ শত শত পাকিস্তানি নাগরিকের নাম উঠে এসেছে যারা অফশোর কোম্পানির মাধ্যমে গোপনে বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন। কোনো ধরনের অপরাধ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়ারও কথা বলেন তিনি।

সোমবার (৪ অক্টোবর) তিনি এক টুইট বার্তায় প্যানডোরা পেপারসে গোপন তথ্য প্রকাশ করাকে স্বাগত জানান।

পাকিস্তানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, মন্ত্রিসভার দুই সদস্যসহ দেশটির সাতশ'র বেশি মানুষের নাম প্রকাশিত হয়েছে ওই তালিকায়। ফাঁস হওয়া নথিতে দেশটির অর্থমন্ত্রী শওকত তারিন এবং তার পরিবারের সদস্যরা চারটি অফশোর ফার্মের মালিক বলে উল্লেখ করা হয়।

ফাঁস হওয়া নথিতে আরও বলা হয় দেশটির পানিসম্পদমন্ত্রী চৌধুরী মুনিস এলাহী অফশোর ট্যাক্স হেভেনের মাধ্যমে পরিকল্পিত বিনিয়োগ করা থেকে সরে এসে ছিলেন। কারণ এর আগে তাকে বলা হয়েছিল যেকোনো ধরনের বিনিয়োগের জন্য দেশটির শুল্ক কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।

যদিও এলাহী পরিবারের মুখপাত্র প্যানডোরা পেপারস তাদের বিরুদ্ধে আসা সব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, রাজনৈতিক প্রতিশোধ এবং তথ্যের ভুল ব্যাখ্যা নথির মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিশ্বের ৩৫ রাষ্ট্রনেতা, তিন শতাধিক সরকারি কর্মকর্তা, সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তা, শতাধিক ধনকুবেরের গোপন সম্পদ ও লেনদেনের তথ্য ফাঁস করে দিয়েছে ‘প্যানডোরা পেপারস’। এর মাধ্যমে গ্রিক উপকথায় বিশ্বের প্রথম মানবী প্যানডোরার বাক্সের মতোই বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে বিশ্বের প্রভাবশালীদের গোপন সম্পদের তথ্য।

প্যানডোরা পেপারসে প্রকাশিত নথিগুলো নিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি, গার্ডিয়ানসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের যৌথ অনুসন্ধান ‘বহু বাক্স খুলে দিচ্ছে’ বলে ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) প্রতিবেদনের নাম দিয়েছে ‘প্যানডোরা পেপারস’। যৌথ অনুসন্ধানে সংবাদমাধ্যমগুলো প্রায় এক কোটি ২০ লাখ নথিপত্র হাতে পেয়েছে।

বিবিসি প্যানোরামার প্রকাশ করা এসব নথিতে ৩৫ জন রাষ্ট্রনেতার তথ্য মিলেছে। সেই তালিকায় রয়েছেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রীরা। তাদের মধ্যে কেউ এখনো পদে বহাল, কেউ সাবেক। ৩০০ কর্মকর্তার মধ্যে রয়েছেন ৯০টির বেশি দেশের মন্ত্রী, বিচারক, মেয়র, সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তা। আর শতাধিক ধনকুবেরের যে তথ্য এসেছে, তাদের মধ্যে রয়েছেন ব্যবসায়ী নেতা, বিনোদন জগতের তারকা।

এমএসএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]