চোখের পলকে নদীতে ভেঙে পড়লো বাড়ি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২৩ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১

ভারতের কেরালা রাজ্যে ভারি বৃষ্টির কারণে আকস্মিক বন্যা এবং ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এরই মধ্যে কমপক্ষে ২৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে অন্তত ছয় শিশু রয়েছে। এখনো অনেক মানুষ নিখোঁজ থাকায় হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত কয়েকদিন ধরেই প্রবল বৃষ্টির কারণে কেরালায় বন্যার পাশাপশি ভয়াবহ ভূমিধসে বহু বাড়ি-ঘর ভেসে গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে রাজ্যের কোট্টায়াম শহরের অসংখ্য মানুষ।

কোট্টায়াম জেলায় বন্যার পানিতে একটি বাড়ি ভেসে গেছে। সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিওতে দেখা গেছে চোখের পলকেই বাড়িটি বন্যার পানিতে ভেঙে পড়ল। এরপরেই বাড়িটির কোনো অস্তিত্বই আর পাওয়া যায়নি। প্রবল বন্যার পানিতে মুহূর্তের মধ্যেই তলিয়ে যায় এটি।

সে সময় বাড়ির সামনে বেশ কয়েকজনকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। বাড়িটি নদীর একেবারে কাছেই ছিল। ফলে বন্যার পানিতে এর অবস্থান নড়বড়ে হয়ে গিয়েছিল।

তবে বাড়িটি ভেঙে পড়ার সময় এর ভেতরে কেউ ছিল না। তাই কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। কেরালার কোট্টায়াম এবং ইডুক্কি জেলায় ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। কোট্টায়ামে ১২ জন নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মোকাবিলা বাহিনীর পাশাপাশি, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং বিমানবাহিনীও উদ্ধার ও সহায়তা কার্যক্রমে এগিয়ে এসেছে।

বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারায়ি বিজয়ানের সঙ্গে আলোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি জানিয়েছেন, দুর্যোগকালীন সময়ে আহত এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় কাজ করছে কর্তৃপক্ষ।

টিটিএন/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]