ডিসি মুভিতে কাশ্মীরে ‘শান্তি ফেরালো’ সুপারম্যান, ভারতীয়দের ক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:০৯ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০২১
ছবি: সংগৃহীত

কাশ্মীর বিতর্কে নতুন করে ঘি ঢাললো ডিসি কমিকস। তাদের নতুন অ্যানিমেশন মুভিতে কাশ্মীরকে ‘বিতর্কিত অঞ্চল’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। পাশাপাশি, জনপ্রিয় সুপারহিরো চরিত্রদের দিয়ে সমরাস্ত্র ধ্বংস করে কাশ্মীরকে অস্ত্রমুক্ত অঞ্চল ঘোষণার দৃশ্যও দেখানো হয়েছে। এ নিয়ে বেজায় ক্ষেপেছে ভারতীয়রা। তাদের কেউ কেউ ভারতে ডিসি কমিকস নিষিদ্ধেরও দাবি জানিয়েছেন।

গত ১২ অক্টোবর মুক্তি পেয়েছে ডিসির নতুন অ্যানিমেশন মুভি ‘ইনজাস্টিস’। এর একটি অংশে দেখা যায়, জনপ্রিয় সুপারহিরো চরিত্র সুপারম্যান ও ওয়ান্ডার ওম্যান যুদ্ধ থামানোর মিশনে নেমেছে। প্রবল শক্তিতে তারা ধ্বংস করে দিচ্ছে ট্যাংক-যুদ্ধবিমানসহ সব ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র। সুপারহিরোদের তোপের মুখে পালিয়ে যাচ্ছেন সেনা সদস্যরা।

সম্প্রতি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে মুভির এই অংশটির একটি ভিডিও ক্লিপ। যাতে দেখা যায়, সুপরাম্যান এবং ওয়ান্ডার ওম্যান একটি কাল্পনিক জায়গায় লড়াই করছে। ভয়েস ওভারে বলা হচ্ছে, সুপারম্যান একটি গণহত্যা থামিয়ে দিয়েছে। ‘‘এম’গোটা’’ (কাল্পনিক দেশ) সরকার সেখানকার জনগণের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছিল। বিতর্কিত কাশ্মীরে সুপারম্যান-ওয়ান্ডার ওম্যান সব সমরাস্ত্র ধ্বংস করে সেটিকে অস্ত্রমুক্ত অঞ্চল ঘোষণা করেছে। ভিডিও ক্লিপের শেষাংশে দেখা যায়, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের দুই নেতাকে পাশাপাশি বসিয়ে শান্তিচুক্তিতে বাধ্য করছে সুপারম্যান।

অ্যানিমেশন মুভিটি তেমন সাড়া না ফেললেও ভিডিও ক্লিপটি বেশ বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। এর পক্ষে-বিপক্ষে কথা বলতে শুরু করেছে মানুষজন। তবে এ বিষয়ে ভারতীয় নেটব্যবহারকারীদের বেশিরভাগের মন্তব্যই নেতিবাচক।

টুইটারে একজন লিখেছেন, ভারতে সুপারম্যান যথেষ্ট জনপ্রিয়। কিন্তু এই কাজ করে সে জনপ্রিয়তা হারালো।

আরেক ব্যক্তি এটিকে ‘বোকামির চরমসীমা’ উল্লেখ করে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও এর মানুষেরা বরবরের মতোই মনে করে, তারা সব কিছুর ঊর্ধ্বে। এরপর ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে তিনি দাবি জানিয়েছেন, সারাবিশ্ব থেকে মুভির এই অংশটি সরিয়ে না নেওয়া পর্যন্ত ভারতে যেন ডিসি কমিকম নিষিদ্ধ করা হয়।

অবশ্য দৃশ্যটির পক্ষেও কথা বলছেন অনেকে। এক নেটিজেনের বক্তব্য, কাশ্মীর পরিস্থিতি সামলাতে আসলেই সুপারম্যানকে দরকার।

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]