ত্রিপুরার পৌর-পঞ্চায়েত নির্বাচনে সব কেন্দ্রে প্রার্থী দেবে তৃণমূল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ২৪ অক্টোবর ২০২১

আগরতলা সংবাদদাতা

ত্রিপুরায় এখনও সেভাবে সংগঠনই মজবুত হয়নি। এরপরও আসন্ন পৌর ও পঞ্চায়েত নির্বাচনে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। ৩৩৪টি আসনের সবগুলোতে প্রার্থী দেবে তারা। এরই মধ্যে প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ শেষ করেছে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূলের রাজ্যসভার সংসদ সদস্য সুস্মিতা দেব।

রোববার (২৪ অক্টোবর) তিনি জানান, আগামী ৩০ অক্টোবরের মধ্যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। এর আগে তৈরি করে রাখা তালিকার গ্রহণযোগ্যতা যাচাই করে নিতে চাচ্ছে তৃণমূল।

সুস্মিতা দেব বলেন, শাসকদল বিজেপির প্রতি মানুষ এখন বীতশ্রদ্ধ। দীর্ঘদিন ধরে তারা বিজেপির বিকল্প খুঁজতে শুরু করেছেন। পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল সরকার যেসব উন্নয়নমূলক কাজ করছে তা দেখে অনেকেই আবেগতাড়িত হয়ে পড়ছেন। বিশ্বাস ও আস্থার জায়গা থেকে অনেকে এগিয়েও আসছেন। রোববারও সেই অনুযায়ী বিভিন্ন দল ছেড়ে ৬১ পরিবারের মোট ২৫২ জন ভোটার তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের বিধানসভা এলাকার এক যুবনেতার বাড়িতে এই যোগদান সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। দলীয় পতাকা হাতে তাদের স্বাগত জানান সাংসদ সুস্মিতা দেব।

তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে রাজ্যে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তা শাসকদল বিজেপিই করেছে। তবে এ ধরনের পরিবেশ কাজে লাগবে না বিজেপির। তৃণমূল কংগ্রেস ভালো করেই জানে, এ ধরনের পরিবেশে কীভাবে রাজনীতি করতে হয়।

বরজলা বিধানসভা কেন্দ্রেও একইভাবে রোববার বিকেলে আরও ২৫ পরিবারের ১০০ ভোটার তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন।

সুস্মিতা দেব বলেন, যারা নতুন যোগ দিয়েছে তাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আসন্ন পৌর নির্বাচন ও বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা হবে বিজেপির সাথে।

তিনি বলেন, পেট্রল-ডিজেলের দাম অস্বাভাবিকভাবেই বেড়েছে দেশে। জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি সবচেয়ে বেশি আঘাত নেমেছে যুব জনগোষ্ঠীর ওপর। রাজ্যের মানুষ তাদের ভোটাধিকারের মাধ্যমে এর যোগ্য জবাব দেবেন বলে তিনি মনে করেন।

এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]