ভারতকে হারানোর খুশিতে বেপরোয়া উদযাপন, পাকিস্তানে গুলিবিদ্ধ ১২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩৩ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২১
ভারতের বিপক্ষে জেতায় পেশোয়ারে পাকিস্তানিদের উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথমবারের মতো ভারতকে হারিয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান। বিরাট কোহলির দলের বিপক্ষে সেই জয়টাও এসেছে ১০ উইকেটের বিরাট ব্যবধানে। ফলে পাকিস্তানিদের আনন্দ সীমা ছাড়ানোই স্বাভাবিক। কিন্তু বিপত্তি বেঁধেছে তাদের উদযাপন সীমা ছাড়ানোয়। দেশটির বৃহত্তম শহর করাচিতে বন্দুকের গুলি ছুড়ে বিজয়োৎসব করতে গিয়ে জখম হয়েছেন অন্তত এক ডজন মানুষ।

পাকিস্তানি সম্প্রচারমাধ্যম জিও টিভি জানিয়েছে, রোববার (২৪ অক্টোবর) রাতে ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক ম্যাচ জয়ের পরপরই রাস্তায় নেমে আসেন উল্লাসিত পাকিস্তানিরা। নেচে-গেয়ে, বাজি পুড়িয়ে বিজয় উদযাপন করেছেন তারা।

jagonews24বাজি পুড়িয়ে পাকিস্তানিদের বিজয়োল্লাস। ছবি: সংগৃহীত

কিন্তু দেশটির সবচেয়ে বড় শহর করাচিতে ফাঁকা গুলি ছুড়ে আনন্দ করতে গিয়ে আহত হয়েছেন অন্তত ১২ জন। এদের মধ্যে পুলিশের এক উপ-পরিদর্শকও রয়েছেন।

গুলি ছুড়ে পাকিস্তান দলের বিজয় উদযাপনের খবর পাওয়া গেছে করাচির সচল গোথ, ওরাঙ্গি, নিউ করাচি, গুলশান-ই-ইকবাল ও মালির এলাকায়। এর মধ্যে ওরাঙ্গিতে অজ্ঞাত দিক থেকে আসা গুলিতে আহত হয়েছেন অন্তত দুজন।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, গুলশান-ই-ইকবাল এলাকায় ফাঁকা গুলি ছোড়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযানের সময় উপ-পরিদর্শক আব্দুল গনির শরীরেও একটি বুলেট আঘাত করে।

jagonews24করাচিতে খোলা ময়দানে পাকিস্তানি ক্রিকেটভক্তদের উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত

প্রসঙ্গত, রোববার রাতে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইতিহাস গড়েছে পাকিস্তান। ভারতের মতো শক্তিশালী দলকে তারা হারিয়েছে অনেকটা হেসেখেলেই।

১৯৭৫ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ এবং ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর পর থেকে এ ধরনের আসরে ভারত ছিল পাকিস্তানের কাছে এক অজেয় প্রতিপক্ষের নাম। আগের ১২বারের দেখায় প্রতিবারই হারতে হয়েছে পাকিস্তানিদের। কিন্তু রোববার বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাটে ভর করে অবশেষে সেই আক্ষেপ ঘুচলো পাকিস্তানের।

কেএএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]