সামরিক অভ্যুত্থানের পর সুদানে জরুরি অবস্থা জারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:১৩ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২১

সার্বভৌম পরিষদের প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান সোমবার সুদানে সামরিক অভ্যুত্থানের পর জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। পাশাপাশি সার্বভৌম পরিষদ এবং অন্তর্বর্তীকালীন সরকারও ভেঙে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সোমবার (২৫ অক্টোবর) আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এক টেলিভিশন ভাষণে বুরহান বলেন, চলমান লড়াই দেশের সুরক্ষা এবং নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ তাই এটি রক্ষা করার জন্য সেনাবাহিনীর পদক্ষেপ নেওয়া দরকার। গণতান্ত্রিক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের আগ পর্যন্ত সামরিক সরকার দায়িত্ব পালন করবে। দেশটিতে ২০২৩ সালে জাতীয় নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

অভ্যুত্থানের সমর্থনে বিবৃতি দিতে অস্বীকার করার পর সুদানের নিরাপত্তা বাহিনী প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদককে গ্রেফতার করেছে এবং তাকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে দেশটির তথ্য মন্ত্রণালয়।

এর আগে সকালের দিকে সুদানের প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদককে গৃহবন্দি করা হয়। সামরিক বাহিনীর অজ্ঞাত সদস্যরা তার বাড়ি ঘেরাওয়ের পর তাকে গৃহবন্দি করে। প্রধানমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা ও দেশটির ক্ষমতাসীন সার্বভৌম কাউন্সিলের সদস্যসহ বেশ কয়েকজন বেসামরিক কর্মকর্তাকে সামরিক বাহিনী গ্রেফতারের পরই হামদকের গৃহবন্দি করা হয়েছিল।

গত মাসেও দেশটিতে অভ্যুত্থানচেষ্টা হয়। তবে অভ্যুত্থানের ওই চেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়। আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে সেসময় বলা হয়েছিল, একদল সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা করেছিলেন। তখন তারা অভ্যুত্থান করতে ব্যর্থ হন।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]