মিশরের দীর্ঘ জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়ার ঘোষণা সিসির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২১

মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি দেশব্যাপী কয়েক বছর ধরে চলা জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। ২০১৭ সালে দুইটি গির্জায় বোম হামলা পর দেশটিতে জরুরি আইন জারি করা হয়। আইএসের ওই হামলায় অন্তত ৪০ জন নিহত ও কয়েক ডজন আহত হয়। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় ফেসবুক পোস্টে সিসি দেশটির নাগরিকদের এবং তার অনুগতদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এ অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা এখন অনেক ভালো। এ কারণেই আমি সারা দেশ থেকে জরুরি অবস্থা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

মিশরের বিশিষ্ট অধিকারকর্মী হোসাম বাহগাত এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, এটি জরুরি রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা আদালতের ব্যবহার বন্ধ করবে।

জরুরি আইনের মাধ্যমে কর্তৃপক্ষ ওয়ারেন্ট ছাড়াই গ্রেফতার এবং মানুষের বাড়িতে তল্লাশি করার অনুমতি দেয়। তাছাড়া খর্ব করার হয় বাক-স্বাধীনতা এবং সমাবেশের মতো সাংবিধানিক অধিকার।

দেশটিতে চার বছর ধরে অস্থিরতা বিরজা করছে। বিশেষ করে সিনাই উপত্যকার উত্তরাঞ্চলে হামলার ঘটনা বেশি ঘটছে। মাঝে মধ্যে অন্যান্য জায়গায়ও হামলার ঘটনা ঘটে।

অধিকার সংগঠনগুলো বলছে, সরকার জরুরি অবস্থা জারি করে যে কোনো ধরনের বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করেছে এবং ভিন্ন মতকে দমন করতে সক্ষম হয়েছে।

সিসি ২০১৩ সালে মুসলিম ব্রাদারহুডের গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি মোহাম্মাদ মুরসিকে উৎখাত করেন। তারপর ২০১৪ সাল থেকে তিনি দেশটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছেন। এ সময় নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেন তিনি এবং কোনো ধরনের রাজনৈতিক বন্দির কথা অস্বীকার করেন।

এমএসএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]