স্কুল ক্যাম্পাসে ধূমপানে বাধ্য করা হলো শিশুদের!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২৩ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২১

ভারতের কর্ণাটকের বেঙ্গালুরুতে একটি সরকারি স্কুল ক্যাম্পাসে শিশুদের গাছে বেঁধে নির্যাতন এবং ধূমপান করতে বাধ্য করার অভিযোগে অন্তত ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতাদের মধ্যে পাঁচজন অপ্রাপ্তবয়স্ক রয়েছে। খবর এনডিটিভি।

হোয়াইটফিল্ডি এলাকায় ব্রুহাত বেঙ্গালুরু মহানগর পালিক (বিবিএমপি) পরিচালিত একটি স্কুলের ১০-১৩ বছর বয়সী কিছু শিক্ষার্থীকে প্রায়ই ক্যাম্পাসের ভিতরে তারা উত্যক্ত করতো বলে অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি স্থানীয়দের দ্বারা রেকর্ড করা নির্যাতনের ভিডিও ক্লিপগুলো প্রকাশিত হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, কিছু শিশুকে নির্মমভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, প্রথমে শিশুদের গাছের সঙ্গে শক্ত করে বাধা হয়। পরে তাদের ধূমপান করতে বাধ্য করা হয়। অন্যএকটি ভিডিওতে দেখা যায়, অভিযুক্তদের মধ্যে একজন লাঠি দিয়ে শিশুদের পিটাচ্ছে। শিশুরা অভিযুক্তদের দেওয়া আদেশ মানতে অস্বীকার করলে তাদের নির্যাতন করা হয় বলে জানান কর্মকর্তারা।

অভিযুক্তরা শিশুদের দিয়ে দোকান থেকে জোর করে তাদের জন্য সিগারেট কিনে নিয়ে আসতেও বাধ্য করতো। অধিকাংশ অভিযুক্তরা পার্শ্ববর্তী একটি কারখানায় কাজ করে। তাদের মধ্যে কিছু শিক্ষার্থীও রয়েছে। এরমধ্যে একজনকে পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়েছে আর বাকিদের কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে। কিশোর অপরাধের বিভিন্ন ধারা ও ভারতীয় পেনাল কোড অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

হোয়াইটফিল্ডের ডেপুটি কমিশনার অব পুলিশ ডি দেবরাজ বলেছেন, আমরা তথ্য পেয়েছি রাতে স্কুল ক্যাম্পাসের ভিতরে মদ পান করা হয়। তাই সেখানে পুলিশ চেক পোস্ট স্থাপন এবং টহল জোরদার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে দিনের মাঝামাঝি সময়ে। এর পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় তার জন্য আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]