অ্যাপল-অ্যামাজনকে ২০ কোটি ইউরো জরিমানা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৭ পিএম, ২৪ নভেম্বর ২০২১

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ব্যবসায়িক নিয়ম ভঙ্গ করে অ্যাপল ও বিটস ব্র্যান্ডের পণ্য বিক্রি করায় ইতালিতে অ্যামাজন এবং অ্যাপলকে ২০ কোটি ইউরোর বেশি জরিমানা করেছে ইতালির অ্যান্টিট্রাস্ট ওয়াচডগ নামের একটি বাজার পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা। প্রতিষ্ঠান দুইটির বিরুদ্ধে প্রধান অভিযোগ হলো একটি চুক্তির মাধ্যমে তারা প্রতিযোগিতা সীমাবদ্ধ করতে সহযোগিতা করেছে। আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২০১৮ সালে অ্যাপল ও অ্যামাজনের মধ্যে একটি চুক্তি হয়। ওই চুক্তির অধীনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল নির্বাচিত রিসেলারদের কাছে অ্যামাজনের মার্কেটপ্লেসে প্রবেশাধিকার সীমিত করে। যা ইউরোপিয়ান আইনের লঙ্ঘন। মঙ্গলবার ইতালিয়ান কম্পিটিশন অথরিটি (আইসিএ) এ তথ্য জানায়।

কর্তৃপক্ষ অ্যাপলকে ১৩ কোটি ৪০ লাখ ইউরো ও অ্যামাজনকে প্রায় ৬ কোটি ৮০ লাখ ইউরো জরিমানা করেছে। পাশাপাশি যেকোনো ধরনের সীমাবদ্ধতা পরিহার ও রিসালেরদের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করার নির্দেশনা দিয়েছে। তবে অ্যাপল ও অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা এই জরিমানার বিরুদ্ধে আপিল করবে।

অ্যামাজন জানিয়েছে, প্রস্তাবিত জরিমানা অসামঞ্জস্যপূর্ণ ও অযৌক্তিক। আমরা কোনো বিক্রেতাকে বাদ দেই না বরং আমাদের ব্যবসায়িক মডেল তাদের সাফল্যর ওপর নির্ভর করে। তবে অ্যাপল ইতালির প্রতিযোগিতা কর্তৃপক্ষের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে জানায়, আমরা অন্যায় বা ভুল কিছু করিনি।

অ্যাপল বলছে, নির্বাচিত রিসেলারদের সঙ্গে একত্রে কাজ করলে ভোক্তাদের সুরক্ষা নিশ্চিত হয়। ভোক্তারা আসল পণ্য পায় বলে জানায় অ্যাপল। নকল পণ্য সরবরাহ করা খুবই বিপজ্জনক। ভোক্তাদের আসল পণ্য নিশ্চিত করতেই আমরা আমাদের রিসেলারদের সঙ্গে একত্রে কাজ করি। বিশ্বের সব দেশেই অ্যাপেলের একটি দল কাজ করে। যারা ভোক্তাদের আসল পণ্য নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট দেশের আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, শুল্ক ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কাজ করে।

এমএসএম/টিটিএন/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]