গাড়ি কেনার টাকা না থাকায় নিজেই বানালেন অভিনব তিন চাকার যান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১৬ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২১

পশ্চিমবঙ্গ সংবাদদাতা

দক্ষিণ ২৪ পরগনার মন্দিরবাজার থানার বাঁশবেড়িয়ার পুকুরিয়া গ্রামে বসবাস সুজয় মণ্ডলের। দরিদ্র পরিবারে জন্ম হওয়ায় এলাকার বাজারবেরিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পড়ার পর আর স্কুলে যাওয়া হয়নি তার। এরপর কাজের তাগিদে বাবা-মায়ের সঙ্গে জয়নগরে চলে আসেন। জয়নগর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা সুজয় নিজের উদ্যোগেই একটি অভিনব তিন চাকার গাড়ি বানিয়ে নজর কেড়েছেন এলাকার মানুষের।

সুজয় এখন বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ডেকোরেশনের কাজ করেন। ছোট বেলা থেকে তার ইচ্ছা ছিল বড় হয়ে একটা চার চাকা গাড়ি কিনবেন। কিন্তু গাড়ি কেনার জন্য তো অনেক টাকার প্রয়োজন, তাই টাকা জোগাড় করতে না পেরে সুজয় গাড়ি তৈরির সিদ্ধান্ত নেন। ঘরে বসেই কাগজ কলম নিয়ে নিজের পছন্দমতো একটি গাড়ির নকশা তৈরি করেন তিনি। ঠিক করেন, একটি পুরোনো মোটরবাইক কিনে তার ইঞ্জিন নিয়ে বাড়িতে বাতিল হওয়া লোহার এবং ফাইবারের যেসব জিনিস আছে সেগুলো দিয়েই গাড়ি বানাবেন তিনি।

গাড়ি তৈরির জন্য প্রযুক্তিগত কারিগরি জানতে মাঝে মধ্যেই সুজয় আশপাশের গাড়ি গ্যারেজে গিয়ে গাড়ি মিস্ত্রীদের কাজ পর্যবেক্ষণ করতেন। এরপর ইচ্ছে শক্তিকে কাজে লাগিয়ে মাত্র একমাসের ব্যবধানে সুজয় বাড়িতে বসেই বানিয়ে ফেললেন তিন চাকার এক অভিনব যান। নাম দিলেন, স্নেক কার।

ওই গাড়ি প্রস্তুত করার সময় টেস্ট ড্রাইভের জন্য যতবার এলাকার রাস্তায় বেড়িয়েছেন ততবারই গাড়ির সামনে ভিড় জমিয়েছে কৌতুহলী মানুষ। অভিনব তিন চাকার যান তৈরিতে সাফল্য পেয়ে সুজয় এবার তৈরি করতে চান রোবোটিক রিকশা।

এমআরএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]