জনসংখ্যাগত সংকট মোকাবিলায় মাতৃত্বকালীন ছুটি বাড়িয়েছে চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২১

চীনের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে মাতৃত্বকালীন ছুটি কমপক্ষে ৩০ দিন বাড়ানো হয়েছে। শিশু-পালনকে উৎসাহিত করার সর্বশেষ চেষ্টা হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের কর্তৃপক্ষ। কারণ দেশটি রেকর্ড নিম্ন জন্মহারের কারণে জনসংখ্যাগত সংকটের মুখোমুখি হয়েছে।

এ বছর দেশটিতে পরিবার পরিকল্পনার নিয়মও শিথিল হয়েছে। নিয়মানুযায়ী, চীনের মানুষকে তৃতীয় সন্তান নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। কারণ দেশটির অধিকাংশ কর্মচারীদের মধ্যে বার্ধক্যজনিত সমস্যা দেখা দেওয়ায় অর্থনীতির গতি ধীর হচ্ছে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) বেইজিংয়ের সরকার ঘোষণা করেছে যে নারীরা এখন ১৫৮ দিনের মাতৃত্বকালীন ছুটি নিতে পারবেন। সাংহাই কর্তৃপক্ষ একদিন আগে একই ধরনের পরিবর্তন ঘোষণা করে।

চীনের সরকারি বার্তা সংস্থা জানায়, পূর্ব ঝেজিয়াং প্রদেশে দ্বিতীয় বা তৃতীয় সন্তানের মায়েরা এখন মোট ১৮৮ দিনের মাতৃত্বকালীন ছুটি নিতে পারেন। কর্তৃপক্ষের নেওয়া এমন সিদ্ধান্তের ফলে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। অনেকে আবার উদ্বেগ জানিয়েছেন। কারণ এর ফলে নারীদের চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে কোম্পানিগুলো দুইবার চিন্তা করবে। এতে নারীদের বেকারত্বের হার বাড়তে পারে।

এদিকে বেইজিংয়ে পিতৃত্বকালীন সময় কেন বাড়বে না সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। বর্তমানে শহরটিতে পিতৃত্বকালীন ছুটি ১৫ দিন। একইভাবে, ঝেজিয়াংয়েও পিতৃত্বকালীন ছুটি ১৫ দিন ও সাংহাইতে ১০ দিন।

চীন ২০১৬ সালে এক সন্তান নীতি পরিহার করে দুই সন্তান নীতিতে প্রবেশ করে। সবশেষ এ বছরের শুরুতে তিন সন্তান নেওয়ার অনুমতি দেয় দেশটির কর্তৃপক্ষ।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]