যুক্তরাজ্যে অ্যারওয়েন ঝড়ের আঘাত, ২ জনের প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:০৭ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০২১

যুক্তরাজ্যের স্কপল্যান্ডে অ্যারওয়েন ঝড়ের কবলে পড়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। ঝোড়ো বাতাস, বৃষ্টি ও তুষারপাতের কারণে বিভিন্ন স্থানে গাছ উপড়ে গেছে। ঝড়ের সময় স্কটল্যান্ডের এন্ট্রিমে একটি গাছ গাড়ির ওপর ভেঙে পড়ায় এক ব্যক্তি মারা যান। তিনি একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। এছাড়া কুমব্রিয়ায়ও গাছ পড়ে একজন মারা গেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। ঝড়ের কারণে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে স্কটল্যান্ডের ৮০ হাজার মানুষ। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ঝড়ের সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ১৫৮ কিলোমিটার। এ সময় রচডেল এলাকায় ১২০টি লরিকে আটকে থাকতে দেখা গেছে। যুক্তরাজ্যজুড়ে বাতাস, তুষারপাতের সতর্কতা জারি রয়েছে। স্কটল্যান্ড ও উত্তর-পূর্ব ইংল্যান্ডের পূর্ব উপকূলজুড়ে বিরল সতর্কতা জারি করেছে দেশটির আবহাওয়া দপ্তর।

jagonews24

পুলিশ জানিয়েছেন, উত্তর আয়ারল্যান্ডে একটি গাছ পড়ে যে শিক্ষক মারা গেছেন তিনি মাঘেরার সেন্ট মেরি প্রাইমারি স্কুলের অধ্যক্ষ ছিলেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় তার গাড়িটি গাছের নিচে চাপা পড়লে তিনি নিহত হন।

দেশটির আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, রাতভর ঝোড়ো হাওয়ায় যুক্তরাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকা প্রভাবিত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রচুর গাছপালা ও আবাসিক ভবন। লন্ডন নর্থ ইস্টার্ন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ যাত্রীদের সোমবার পর্যন্ত ভ্রমণ না করার পরামর্শ দিয়েছে। অ্যাবারডিন, পার্থ ও ইনভারনেসের মধ্যে ট্রেন পরিষেবা বন্ধ রেখেছে স্কটল্যান্ড কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি অন্যান্য ট্রেন সেবাও ব্যাহত হচ্ছে।

jagonews24

স্কটিশ ও সাউদার্ন ইলেকট্রিসিটি নেটওয়ার্ক জানিয়েছে, স্কটল্যান্ডের প্রায় ৮০ হাজার বাড়ি বিদ্যুৎবিহীন রয়েছে। অন্যদিকে ইউকে নর্দান পাওয়ার গ্রিডও ৫৫ হাজার গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন রেখেছে। প্রধানত নর্থাম্বারল্যান্ড, কাউন্টি ডারহাম ও টাইন অ্যান্ড ওয়্যারে বিদ্যুত বিভ্রাট দেখা দিয়েছে। উত্তর আয়ারল্যান্ডের কিছু অংশেও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এমএসএম/টিটিএন/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]