তাইওয়ানের চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানে এ বছর ১০ হাজার লোক নিয়োগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০১ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২২

তথ্য-প্রযুক্তির বৈশ্বিক বাজারে নিজেদের অবস্থান আরও সুদৃঢ় এবং সম্প্রসারণ পরিকল্পনাকে শক্তিশালী করতে এবছর তাইওয়ানের শীর্ষ দুই চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান দশ হাজার প্রকৌশলী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে। অভ্যন্তরীণ উৎপাদন খাতে বিনিয়োগ বাড়িয়ে আন্তর্জাতিক বাজারে রাজত্ব করতে চায় তাইওয়ান। এছাড়া দেশটির দেশীয় বাজার ব্যবস্থাপনাকে শক্তিশালী করতে উৎসাহ যোগাচ্ছে অনেক দেশই।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তাইওয়ান সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড (টিএসএমসি) জানিয়েছে, ২০২২ সালে তারা আট হাজার প্রকৌশলীকে নিয়োগ দেবে। গত বছর একই সংখ্যক প্রকৌশলী নিয়োগ দেয় কোম্পানিটি।

১৯৮৭ সালে প্রতিষ্ঠিত চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটি এখন শীর্ষদের তালিকায় থেকে প্রযুক্তি উদ্ভাবনের কাজ করছে। বিশ্বের বৃহত্তম চুক্তিভিত্তিক চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটি একই সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান এবং চীনে তাদের ব্যবসা-বাণিজ্যের সর্বোচ্চ সম্প্রসারণ নীতি চালিয়ে যাচ্ছে।

Taiwan-1.jpg

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) টিএসএমসি ২০২২ সালের কর্ম-পরিকল্পনা ঘোষণা করে। এতে জানা যায়, বিশ্বব্যাপী চিপের ঘাটতি দূর করতে, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় কাজে লাগাতে এবং ৫-জি অ্যাপ্লিকেশনসে ব্যবহৃত চিপগুলোর ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য চার হাজার চারশ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় করার পরিকল্পনা করেছে।

টিএসএমসি একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে আরও জানিয়েছে, তারা এখনো লোক নিয়োগের বিষয়টি চূড়ান্ত করেনি। তবে এটির গতবছর নিয়োগের লক্ষ্য আট হাজার নির্ধারণ করা হয়েছিল। বিশ্বজুড়ে কোম্পানিটির এখন স্টাফ রয়েছে ৬০ হাজারের বেশি।

শিপমেন্টের মাধ্যমে বিশ্বের শীর্ষ মোবাইল চিপ ডেডভলপার মিডিয়াটেক জানিয়েছে, চলতি বছর তারা দুই হাজারের বেশি কর্মী নিয়োগ দেবে। কোম্পানিটি সম্প্রতি প্রিমিয়াম ৫-জির বাজারে প্রধান মার্কিন মোবাইল চিপমেকার কোয়ালকমকে ছাড়িয়ে গেছে। গত বছর দুই হাজারের বেশি প্রকৌশলী নিয়োগ দিয়েছে তারা। মিডিয়াটেকের এখন কর্মী সংখ্যা ১৯ হাজার তিনশ জন।

মিডিয়াটেকের এক মুখপাত্র বলেন, মূলত তাইওয়ানের নাগরিকরাই নিয়োগ পান এতে। তবে এবার ভারত থেকেও কর্মী নিয়োগ দেবে তারা। সেমিকন্ডাক্টর কোম্পানিটি এরই মধ্যে এক হাজার দক্ষ গবেষকের একটি টিম পেয়েছে।

মিডিয়াটেক আরও জানিয়েছে, তাইওয়ান ডলার হিসাবে এক হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে প্রতিষ্ঠানটি।

তাইওয়ান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরে আয়ের দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম সেমিকন্ডাক্টর। কয়েক দশক ধরে তাইওয়ান তার পশ্চিম উপকূলে একটি সম্পূর্ণ এবং পরিপক্ক চিপ ক্লাস্টার তৈরি করেছে।

Taiwan-1.jpg

বৃহত্তম ইউরোপীয় চিপ সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক (এএসএমএল) এ বছর তাইওয়ানে প্রায় এক হাজার লোক নিয়োগ করার পরিকল্পনা করেছে। এটি গত বছর ১৪শ জনকে নিয়োগ দেওয়ার পরে, দ্বীপটিতে তিন হাজার আটশ দক্ষ লোকের একটি দারুণ টিম হয়েছে।

চিপ উপাদান প্রস্তুতকারক মার্ক অ্যান্ড ইন্টেগ্রিস তাইওয়ানে নতুন করে উৎপাদনের পরিসর বাড়াচ্ছে। এ বছর স্থানীয়ভাবে আরও লোক নিয়োগ করার পরিকল্পনা করছে তারা।

তাইওয়ানে রাজনৈতিক অস্থিরতা, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনার মধ্য দিয়ে কাটাচ্ছে চিপ প্রস্তুতকারী টিএসএমসি এবং মিডিয়াটেকের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো। এর মাঝে স্মার্টফোন, পিসি এবং সার্ভার, এমনকি অটোমোবাইলসসহ সামরিক সরঞ্জামের জন্য চিপের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এই ঘাটতিকে কৌশলে কাজে লাগাতে চায় তাইওয়ানের চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।

যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি এবং জাপানের শীর্ষ গাড়ি নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোও তাইওয়ানের সরকারকে অটোমোটিভ চিপ তৈরির আহ্বান জানাচ্ছে। নিরাপত্তাবিষয়ক কাজে ব্যবহার করার জন্য সরকারগুলোও সেমিকন্ডাক্টর উৎপাদন জোরদার করার কথা বলছে।

প্রতিভাবানদের চিপ তৈরির কাজে নিয়োজিত করতে তাইওয়ান এরই মধ্যে দেশের ভেতরে চারটি শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ে চারটি সেমিকন্ডাক্টর স্নাতক স্কুল চালু করেছে। দেশীয় চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানে মেধাবীদের জায়গা করে দিতে এক কোটির বেশি মার্কিন ডলার অর্থ ব্যয় করবে তাইওয়ান সরকার।

সূত্র: নিক্কেই এশিয়া

এসএনআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]