প্রত্যাশার চেয়ে বেশি পণ্য রপ্তানি করেছে জাপান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৮ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

গত বছরের ডিসেম্বরে জাপানের রপ্তানি প্রত্যাশার চেয়ে দ্রুত গতিতে বেড়েছে। গত ১০ মাস ধরে দেশটির রপ্তানি ক্রমেই বাড়ছে। কারণ ২০২১ সালের শেষের দিকে এসে সরবরাহের বাধাগুলো দূর হতে থাকে। করোনা মহামারিতে দেশটির বাণিজ্যের ওপর ব্যাপক নেতিবাচক প্রভাব পড়ে বিশেষ করে ২০২০ সালে। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) নিক্কেই এশিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

যদিও ক্রমাগত কাঁচামালের ঘাটতি জাপানি কোম্পানিগুলোর জন্য মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। টয়োটার মতো গাড়ি নির্মাতা কোম্পানিগুলো বেকায়দায় পড়েছে। লক্ষ্য মাত্রার চেয়ে কমেছে উৎপাদন। অন্যদিকে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের অনিশ্চয়তা এখনো রয়েছে।

জাপানের অর্থ মন্ত্রণালয়ের তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ডিসেম্বরে দেশটির রপ্তানি বেড়েছে ১৭ দশমিক পাঁচ শতাংশ। এর আগে ইকোনমিস্ট ও রয়টার্সের জরিপে বলা হয়েছিল রপ্তানি বাড়তে পারে ১৬ শতাংশ।

২০২০ সালের তুলনায় ২০২১ সালের ডিসেম্বরে চীনে জাপানের রপ্তানি বেড়েছে ১০ দশমিক আট শতাংশ। চীন হচ্ছে জাপানের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য অংশীদার।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মূল্যেরভিত্তিতে রপ্তানি ও আমদানি ডিসেম্বরে রেকর্ডে ছুঁয়েছে। যা ১৯৭৯ সালের পর সর্বোচ্চ।

ইস্পাত রপ্তানি বছরে বেড়েছে ৭৫ দশমিক এক শতাংশ। তবে রপ্তানির বিপরীতে লাভ হয় ১০ দশমিক দুই শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রে রপ্তানি বেড়েছে ২২ দশমিক এক শতাংশ। পাঁচ মাসে গাড়ি রপ্তানি বেড়েছে ১১ দশমিক নয় শতাংশ।

এমএসএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]