বরিস জনসনের মদ পার্টির তদন্ত করবে পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২৭ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২২

করোনা মহামারি চলাকালে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে মদের পার্টির আয়োজন করা হয়। যা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এবার সেই ঘটনার তদন্ত করার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির পুলিশ। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

দেশটির মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ক্রেসিডা ডিক বলেন, ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট ও হোয়াইটহলজুড়ে করোনা বিধি ভঙ্গের যে অভিযোগ উঠেছে তার তদন্ত করা হচ্ছে। কোনো ধরনের ভয় ও পক্ষপাত ছাড়াই সবাইকে গুরুত্বপূর্ণ আপডেট জানানো হবে বলেও জানান তিনি।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেন, ডাউনিং স্ট্রিটের ঘটনাগুলোর বিষয়ের তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করছেন সিনিয়র বেসামরিক কর্মকর্তা স্যু গ্রে।

জানা গেছে, ২০২০ সালের জুনে ডাউনিং স্ট্রিটের বাগানে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে ওই মদের পার্টির আয়োজন করা হয়। তখন কামিংস ডাউনিং স্ট্রিটের কর্মী ছিলেন। নিজের ব্লগে কামিংস ঈশ্বরের শপথ নিয়ে বলেছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীকে সতর্ক করে বলেছিলেন ওই পার্টিতে যোগ দিলে সেটা নিয়ম ভঙ্গ হবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী তার সতর্ক বার্তার পাত্তা দেননি।

তবে বরিস জনসন সতর্ক করার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, মদপানের পার্টি আয়োজনে লকডাউনের বিধিভঙ্গের ঝুঁকি আছে সে ব্যাপারে কেউ তাকে সতর্ক করেননি।

শুধু লকডাউনের মধ্যে মদের পার্টির আয়োজনে যোগ দেওয়া নয়, বরিস জনসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, গত বছরের ১৭ এপ্রিল ফিলিপের শেষকৃত্য সম্পন্ন হওয়ার সময়ও ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টির আয়োজন করা হয়। আর সেটি ছিল বরিস জনসনের যোগাযোগবিষয়ক পরিচালক জেমস স্ল্যাকের বিদায় উপলক্ষে। সারা দেশে তখন ফিলিপের মৃত্যুতে জাতীয় শোক চলছিল। তবে এ ঘটনায় রানির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]