ইউক্রেনে সেনার গুলিতে পাঁচ রক্ষী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২১ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

ইউক্রেনের ন্যাশনাল গার্ডের এক সেনা নিরাপত্তারক্ষীদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়েছেন। এতে পাঁচজন নিহত এবং আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন। ইউক্রেনের মধ্যাঞ্চলে ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর আল জাজিরার।

পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে দিপ্রো এলাকায় পিভদেনমাস মিসাইল ফ্যাক্টরিতে এক সেনা এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়েছেন।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই সেনা কালাশনিকোভ অ্যাসাল্ট রাইফেল দিয়ে গুলি চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। এর ফলে পাঁচজন নিহত এবং আরও পাঁচজন আহত হয়।

পরবর্তীতে দিপ্রোর বাইরে পিদগোরোন্দে শহর থেকে সন্দেহভাজন ওই হামলাকারীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেনিস মোনাস্টিরস্কি জানিয়েছেন, হামলা চালানো ওই সেনার নাম আর্টেম রিয়াবচুক। আইন অনুযায়ী তার বিচার হবে বলে নিশ্চয়তা দিয়েছেন তিনি।

দেনিস মোনাস্টিরস্কি আরও জানিয়েছেন, হামলায় আহতদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। তাদের বাঁচাতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসকরা।

সম্প্রতি ইউক্রেন নিয়ে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছেই। তার মধ্যেই দেশটিতে এমন একটি ঘটনা সামনে এলো। ইউক্রেনের বিষয়ে পুতিন এবং বাইডেনের সম্পর্ক আরও তিক্ত হচ্ছে।

রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ করলে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, রাশিয়া যদি তার দক্ষিণ-পশ্চিম সীমান্তে অবস্থিত ইউক্রেনের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেয়, তাহলে বিশ্ব তার ‘যথাযথ পরিণতি’ দেখতে পাবে।

গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় বাইডেনকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। ‘হ্যাঁ’ সূচক জবাব দিয়ে তিনি বলেন, ইউক্রেন সীমান্তের বিষয়ে যদি রাশিয়া কোনো পদক্ষেপ নেয় বিশ্বজুড়ে এর ‘পরিণতি হবে বিশাল’। আর সেটা হবে ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে বড় আক্রমণ’-এর ঘটনা।

টিটিএন/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]