ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বাইডেনকে ভারতের অবস্থান জানালেন মোদী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:১৭ এএম, ১২ এপ্রিল ২০২২

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে ইউক্রেনের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একই সঙ্গে ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে নয়াদিল্লির ‘নিরপেক্ষ অবস্থানও ব্যাখ্যা’ করেছেন তিনি। সোমবার (১১ এপ্রিল) এক ভার্চুয়াল বৈঠকে মোদী ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করেন।

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে ওষুধ ও ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোয় ভারতের ভূমিকার কথা জানিয়ে বাইডেনকে মোদী বলেন, ভারত আশা করে যে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে ধারাবাহিক আলোচনার মাধ্যমেই শান্তির পথের সন্ধান মিলবে।

২+২ পর্যায়ের ভার্চুয়াল বৈঠকে বাইডেনের সঙ্গে হাজির ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে সফররত ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

ইউক্রেনে যুদ্ধ নিয়ে কূটনৈতিক স্তরে ভারতের ভূমিকা নিয়ে ইতোমধ্যেই আমেরিকা এবং ইউরোপের একাধিক দেশ প্রকাশ্যে হতাশা প্রকাশ করেছে। জাতিসংঘে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আনা একটিও প্রস্তাব সমর্থন করেনি মোদী সরকার। পাশাপাশি, রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের ভারত সফর এবং রুশ তেল কেনার বিষয়ে নয়াদিল্লির আগ্রহ নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। যুদ্ধ শুরু হওয়ার পরপরই রাশিয়ার ওপর একাধিক ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আমেরিকা এবং তার সহযোগী দেশগুলি।

এই পরিস্থিতিতে মোদী-বাইডেনের বৈঠককে ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলে মনে করা হচ্ছে। মোদী সোমবার বাইডেনকে মনে করিয়ে দেন, ইতোমধ্যেই আন্তর্জাতিক স্তরে বুচায় গণহত্যার নিন্দা করেছে ভারত। নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিও সমর্থন করেছে। মোদী বলেন, ‘আমি ইউক্রেন এবং রাশিয়া দু’দেশের নেতাদের সঙ্গেই একাধিকবার কথা বলেছি এবং তাদের সরাসরি কথা বলার জন্য অনুরোধ করেছি।

এদিকে, ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের কাছে রোববার এক হাজার দুশ’র বেশি মরদেহ পাওয়া গেছে বলে দেশটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। গত মাসে রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালানোর পর থেকে এখন পর্যন্ত ওই অঞ্চলে বহু বেসামরিক নিহত হয়েছে। বিভিন্ন শহর ছেড়ে লাখ লাখ মানুষ পালাতে বাধ্য হয়েছে।

আরও আক্রমণের আশঙ্কায় দেশটির পূর্বাঞ্চল থেকে লোকজন পালিয়ে যাচ্ছে বলে এএফপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

মাত্র একদিন আগেই দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহরে এক শিশুসহ ১০ বেসামরিক নিহত হয়। এর আগে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের কাছে বুজোভা গ্রামে আরও একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। সেখানে ডজনখানেক বেসামরিক নাগরিকের মরদেহ মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রাজধানী কিয়েভের কাছে বুজোভা গ্রামে আরও একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে। সেখানে ডজনখানেক বেসামরিক নাগরিকের মরদেহ মাটিচাপা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কেএসআর/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]