যুগ যুগ ধরে সেহরিতে নবাবী বিরিয়ানি বিতরণ

জ্যোতির্ময় দত্ত জ্যোতির্ময় দত্ত , পশ্চিমবঙ্গ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৯:০৯ পিএম, ০১ মে ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

নবাব নেই, নবাবী শাসনও নেই, তবে টিকে রয়েছে যুগ যুগ ধরে চলে আসা নবাবী প্রথা। একদা সুবে বাংলার রাজধানী মুর্শিদাবাদে আজও রয়ে গেছে নবাবী আমলের পুরোনো এক রীতি। এখনো রমজান মাসের নির্দিষ্ট দুই দিন ইমামবাড়া থেকে প্রায় তিনশ পরিবারের মধ্যে সেহরির জন্য বিরিয়ানি বিতরণ করা হয়।

মুর্শিদাবাদের ইতিহাস সংক্রান্ত বিভিন্ন গ্রন্থ থেকে জানা যায়, নবাবদের সময়ে কয়েক হাজার পরিবারকে বিরিয়ানি বিতরণ করা হতো। নবাবী শাসনের অবসানের পরে সংখ্যাটা কমতে শুরু করে। এখন মুর্শিদাবাদ এস্টেট থেকে বিরিয়ানি বিতরণ করা হয়। কয়েক বছর ধরেই রাজ্য সরকারের নিয়ন্ত্রণাধীন মুর্শিদাবাদের এস্টেট।

ইমামবাড়ার এক কর্মী বলেন, গোটা রমজানে প্রায় তিনশ পরিবারকে সেহরির জন্য তন্দুরি রুটি ও ডাল দেওয়া হয়। রমজান মাসের ১৪/১৫ এবং ২৮/২৯ তারিখ, এই দুই দিন বিতরণ করা হয় সুস্বাদু বিরিয়ানি।

রমজান মাসজুড়ে সকাল থেকেই রান্নার তোড়জোড় শুরু হয়। তবে এ মাসের দুই দিন বিরিয়ানির গন্ধে ম ম করে নবাবী তালুক। নবাবী আমল থেকেই এই প্রথা চলে আসছে বলে জানিয়েছেন ইমামবাড়ার প্রধান।

কেএএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]