দেশে খাদ্য সংকট ঠেকাতে পারবেন শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৮ পিএম, ১৪ মে ২০২২

শ্রীলঙ্কার নবনিযুক্ত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। শুক্রবার (১৩ মে) সকাল থেকেই তিনি তার কার্যালয়ের দায়িত্ব শুরু করেছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, তার সরকার দেশের অর্থনৈতিক সঙ্কট এবং খাদ্যের মূল্য কমাতে কাজ করবেন।

পর্যাপ্ত খাদ্য, চিকিৎসা ও জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিনি বলেন, দেশে খাদ্য সংকট থাকবে না। তবে তার এই আশ্বাস কতটা কার্যকর হবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। কারণ শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি পুরোপুরি ধসে পড়েছে। এই পরিস্থিতি অল্প সময়ে কাটিয়ে ওঠা হয়তো সম্ভব হবে না।

গত বৃহস্পতিবার (১২ মে) শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন রনিল বিক্রমাসিংহে। সেদিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান লঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। ৭৩ বছর বয়সী অভিজ্ঞ এ রাজনীতিবিদ শ্রীলঙ্কার ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির (ইউএনপি) নেতা।

jagonews24

এ নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালণ করছেন। এর আগে আরও পাঁচবার দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন বিক্রমাসিংহে।

সর্বপ্রথম ১৯৯৩ সাল থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। এরপর ২০০১ থেকে ২০০৪ সাল, ২০১৫ থেকে ২০১৫ সাল (১০০ দিন), ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল এবং ২০১৮ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৮ সালের অক্টোবরে সে সময়কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা তাকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে বরখাস্ত করেন। কিন্তু এর দুই মাস পরেই তাকে আবারও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।

১৯৪৯ সালের ২৪ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন রনিল বিক্রমাসিংহে। ১৯৭৭ সালে প্রথমবারের মতো দেশটির সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। সে সময় তিনি সবচেয়ে কম বয়সে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেন। ১৯৯৪ সালের পর থেকে ইউএনপির রাজনীতিতে যুক্ত রনিল বিক্রমাসিংহে।

টিটিএন/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]