ফিলিপাইনের জিডিপি বেড়েছে ৮.৩ শতাংশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৪৮ পিএম, ১৪ মে ২০২২

চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে ফিলিপাইনের জিডিপি বা অর্থনীতির আকার বেড়েছে আট দশমিক তিন শতাংশ। কারণ দেশটিতে এরই মধ্যে করোনার বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়েছে। ফলে ভোক্তাদের চাহিদা বেড়েছে। এর আগে ওমিক্রনের ঢেউ দেশটির অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার কার্যক্রমকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, এর আগের প্রান্তিকে দেশটির অর্থনীতি বাড়ে সাত দশমিক আট শতাংশ। তাছাড়া ২০২১ সালের প্রথম প্রান্তিকে অর্থনীতি তিন দশমিক আট শতাংশ সংকুচিত হয়।

৬৪ বছর বয়সী ফের্দিনান্দ ‘বংবং’ মার্কোস জুনিয়র প্রেসিডেন্ট পদে জয়ী হওয়ার পর দেশটির পরিসংখ্যান বিভাগ এ ঘোষণা দেয়। ফিলিপাইনের আইন-শৃঙ্খলা ও অবকাঠামোখাতে ব্যাপক পরিবর্তন আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

দেশটির অর্থনীতিবিদরা জানিয়েছেন, ২০২২ সালের পরেও মানুষের ব্যয়ের পরিমাণ কম থাকতে পারে। এদিকে কর্পোরেট শুল্ক হার কম হওয়ায় গত বছর রাজস্ব আয় কম হয়েছে। এতে আর্থিক ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়ায় আট দশমিক পাঁচ শতাংশে। ২০২১ সালের শেষ প্রান্তিকে সরকারের ঋণ দাঁড়ায় জিডিপির ৬০ শতাংশের বেশি। মহামারির আগে এই হার ছিল ৪০ শতাংশ।

ফিলিপাইনের সাবেক একনায়ক ফের্দিনান্দ মার্কোস ও তার স্ত্রী সাবেক ফার্স্ট লেডি ইমেলদা মার্কোসের ছেলে প্রেসিডেন্ট পদে জয়ী হয়েছেন। সোমবারের (৯ মে) ভোটে মার্কোস পেয়েছেন ৬০ শতাংশ ভোট। ৩৬ বছর পর আবারও একই পরিবারের হাতে ক্ষমতা ফিরে আসে দেশটিতে।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]