চীন-পাকিস্তান সীমান্তে এস-৪০০ মোতায়েন করতে যাচ্ছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৪ পিএম, ১৮ মে ২০২২

চলতি বছরের জুনের মধ্যেই চীন-পাকিস্তান সীমান্তে এস-৪০০ মিসাইল সিস্টেম মোতায়েন করতে চলেছে ভারত। সম্প্রতি মার্কিন কংগ্রেসের এক অধিবেশনে এমনটাই দাবি করেছেন পেন্টাগনের একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা। খবর এনডিটিভির।

জানা গেছে, এস-৪০০ নিয়ে মার্কিন সিনেটে আর্মড সার্ভিস কমিটির সদস্যদের সামনে বিবৃতি দেন ডিফেন্স ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির ডিরেক্টর লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্কট ব্যারিয়ের। কমিটির সদস্যদের তিনি জানান, গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে ভারতে এস-৪00 মিসাইল সিস্টেম পাঠানো শুরু করেছে রাশিয়া। আগামী জুন মাসের মধ্যে চীন ও পাকিস্তান সীমান্তে এই আধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করতে চলেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

তিনি বলেন, দেশীয় প্রযুক্তিতে হাইপারসনিক, ব্যালিস্টিক, ক্রুজ ও এয়ার ডিফেন্স মিসাইল তৈরি করছে ভারত। ২০২১ সালে তারা (ভারত) বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূল উৎক্ষেপণও করেছে। মহাকাশে স্যাটেলাইটের সংখ্যা বাড়িয়ে চলেছে ভারত ও যুদ্ধের জন্য মহাকাশ প্রযুক্তি ব্যবহারের পথে হাঁটছে দেশটি।

শুরু থেকেই রাশিয়ায় তৈরি এস-৪০০ মিসাইল সিস্টেম নিয়ে আপত্তি জানিয়ে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার হুমকিও দিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে দিল্লি জানিয়ে দেয়, রাশিয়া থেকে ওই মিসাইল সিস্টেম কেনা হবেই। দেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কোনো তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ মেনে নেওয়া হবে না। ফলে বাধ্য হয়ে ভারতকে নিষেধাজ্ঞার তালিকা থেকে ছাড় দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করছে বাইডেন প্রশাসন।

এমন জটিল পরিস্থিতিতে সিনেট কমিটিতে লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্কট ব্যারিয়ের জানান, সেনাবাহিনীর আধুনিকীকরণের জন্য বিপুল মাত্রায় কাজ শুরু করেছে দিল্লি। স্থলসেনা, নৌসেনা, ও স্ট্র্যাটেজিক নিউক্লিয়ার ফোর্সকে যুদ্ধের জন্য সাজিয়ে তুলতে দ্রুত গতিতে কাজ চলছে। তিন বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় তৈরি করতে ‘ইন্টিগ্রেটেড থিয়েটার কমান্ড’ তৈরি করছে ভারত।

২০২১ সালের ডিসেম্বর মাস থেকেই ভারতে এস-৪০০ পাঠানোর কাজ শুরু করেছে রাশিয়া। এরই মধ্যেই পাঞ্জাবে একটি মিসাইল সিস্টেম মোতায়েন করেছে ভারতীয় বাহিনী।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]