১০ ঘণ্টা পর মুক্তি পেলেন পিটিআই নেতা শিরিন মাজারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০৪ পিএম, ২২ মে ২০২২

পাকিস্তানের সাবেক মানবাধিকারবিষয়ক মন্ত্রী ও তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা শিরিন মাজারিকে গ্রেফতারের ১০ ঘণ্টা পর মুক্তির নির্দেশ দেন ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। দিনভর নাটকীয়তা শেষে অবশেষে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। শনিবার (২১ মে) তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শিরিন মাজারির বিরুদ্ধে সরকাকে বিচার বিভাগীয় তদন্তের আদেশও দিয়েছেন হাইকোর্ট।

জানা গেছে, শনিবার রাতেই মুক্তি দেওয়া হয়েছে তাকে। রোববার (২২ মে) ভোরে বাড়ি পৌঁছান তিনি। আদালত পিটিআই নেতার মোবাইল ফোন ও অন্যান্য জিনিসপত্র ফেরত দিতেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।

জমির মালিকানা ও হস্তান্তরের মামলায় পাকিস্তানের পুলিশ কর্মকর্তারা শনিবার সকালে মাজারিকে তার ইসলামাবাদের বাসভবনের বাইরে থেকে গ্রেফতার করে। এরপর সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে তাকে আদালতে নেওয়া হয়।

প্রাথমিক শুনানিতে মাজারি আদালতকে বলেন, ‘এক ঘণ্টার জন্য মোটরওয়েতে আমাকে আটকে রাখা হয়েছিল। একজন পুরুষ চিকিৎসক আমার পরীক্ষা করার চেষ্টা করেছিলেন। তাদের সঙ্গে কোনো নারী কর্মকর্তা ছিলেন না। পাঞ্জাবের দুর্নীতি দমনের কর্মকর্তারা ফোনে নির্দেশ নিচ্ছিলেন। আমার ব্যাগটিও তল্লাশি করা হয় এবং এখনও আমার ফোন ফেরত দেওয়া হয়নি।’

দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন শিরিন মাজারি। তাকে গ্রেফতারের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ইমরান খানসহ তার দলের নেতারা।

পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল মূলত ২০২৩ সালের আগস্টে। কিন্তু তার আগেই অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতা ছাড়তে হয়েছে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে। অতীতের ধারা অনুসরণ করে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের পতনও হয়েছে মেয়াদ পূর্ণ করার আগেই। ইমরান খান ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর দেশটির সেনাবাহিনীর কঠোর সমালোচনা করেন শিরিন মাজারি। 

সূত্র: এক্সপ্রেস ট্রিবিউন, ডন

এসএনআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]