উত্তর প্রদেশে সন্ধ্যা ৭টার পর কর্মক্ষেত্রে রাখা যাবে না নারীদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:২৫ এএম, ২৯ মে ২০২২
ছবি : সংগৃহীত

রাজি না থাকলে ভারতের উত্তর প্রদেশে কর্মক্ষেত্রে নারীদের সন্ধ্যা ৭টার পর রাখা যাবে না। চাকরিজীবী নারীদের জন্য নতুন এ পদক্ষেপ নিলো যোগী আদিত্যনাথের সরকার। শনিবার (২৮ মে) উত্তরপ্রদেশ সরকারের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, নারীরা লিখিত অনুমতি না দিলে সন্ধ্যা ৭টার পর এবং সকাল ৬টার আগে তাদের কর্মক্ষেত্রে আসতে বাধ্য করা যাবে না।

উত্তরপ্রদেশ সরকারের শ্রম ও কর্মসংস্থান দপ্তরের যুগ্ম সচিব সুরেশ চন্দ্র জানান, নারীদের ইচ্ছের বিরুদ্ধে গিয়ে সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৬টার মধ্যে তাদের দিয়ে কোনো কাজ করানো যাবে না। তা বাড়ি থেকেই হোক কিংবা অফিসে এসেই হোক। আর নারীরা যদি রাতে অফিসে এসে কাজ করতে ইচ্ছুক হন, তা হলে তাদের জন্য যাতায়াত ও খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে নিয়োগকারী সংস্থাকে।

যোগী সরকারের তরফে নারী কল্যাণমূলক প্রকল্পে ৭৫ দশমিক ৫০ কোটি রুপি বরাদ্ধ হয়েছে, এ কথা আগেই জানানো হয়েছিল। এবার রাজ্য প্রশাসন জানালো, তাদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে একেবারে জেলাস্তরে ‘সাইবার সহায়তা’ বিভাগ চালু করার কথাও ভাবা হচ্ছে।

এরই পাশাপাশি, কর্মক্ষেত্রে নারীদের ‘কাজের সময়ও’ মেপে দেওয়া হলো। উত্তর প্রদেশ সরকারের বক্তব্য, এই নিয়মের অন্যথা হলে তা শ্রম আইন লঙ্ঘন হিসাবে বিবেচনা করা হবে।

এ ছাড়াও যোগী সরকারের নির্দেশ, কাজের জায়গায় চার জনের বেশি নারী কর্মী থাকলে তবেই তাদের অফিসে ডাকা যাবে।

উত্তর প্রদেশে কর্মজীবী নারীর সংখ্যা ১৭ শতাংশ)। এরপরে এবং সবশেষে রয়েছে বিহার। ওই রাজ্যে চাকরিজীবীদের মধ্যে মাত্র ১৪ শতাংশ নারী।

সূত্র: আনন্দবাজার

এসএনআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]