নির্জন কারাগারে সু চি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০৯ এএম, ২৪ জুন ২০২২

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক নেত্রী অং সান সু চিকে গৃহবন্দি অবস্থা থেকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে রাজধানী নেপিডোর একটি নির্জন কারাগারে। তার বিরুদ্ধে করা সব মামলার শুনানিতে এখন সেখান থেকেই অংশ নেবেন তিনি। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) জান্তা সরকারের মুখপাত্র জাও মিন তুন এক বিবৃতিতে সু চিকে কারাগারে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বুধবার থেকে তাকে কারাগারে রাখা হয়েছে বলে জানান জান্তা সরকারের ওই কর্মকর্তা। এর আগে গত এক বছর ধরে তাকে রাজধানীর অজ্ঞাত স্থানে রাখা হয়েছিল।

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে সামরিক বাহিনী তার নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করার সময় নোবেল জয়ী ৭৭ বছর বয়সী সু চি গ্রেফতার হন। তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি অপরাধের অন্তত ২০টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হলে সু চির ১৫০ বছরের বেশি কারাদণ্ড হতে পারে। এরই মধ্যে তিনি ১১ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, সু চি ভালো আছেন এবং তাকে সহায়তা করার জন্য কারাগারে তিনজন নারী কর্মী নিয়োগ করা হয়েছে। তবে তার সঙ্গে পোষা কুকুর বা সহায়তার জন্য কোনো গৃহকর্মীকে রাখার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

সামরিক সরকারের একটি সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে তাকে কারাগারে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা হয়েছে যে এটি মিয়ানমারের ফৌজদারি আইন অনুযায়ী করা হয়েছে।

মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো সু চির বিরুদ্ধে গোপন বিচারকে প্রতারণা বলে নিন্দা করে আসছে। রুদ্ধদ্বার শুনানি জনসাধারণ ও গণমাধ্যমের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং সু চির আইনজীবীদের সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে নিষেধ করা হয়েছে।

অভ্যুত্থানের পর জনসাধারণের দৃষ্টি থেকে আড়াল করে রাখা সু চি কতদিন নির্জন কারাবাসে থাকবেন তা স্পষ্ট নয়।

সূত্র: বিবিসি

এসএনআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]