কর্মীকে ভুল করে ২৮৬ গুণ বেতন দিয়ে বিপাকে কোম্পানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ২৯ জুন ২০২২
ছবি সংগৃহীত

স্বপ্নের মতো ঘটনা। এমন স্বপ্ন মধ্যবিত্তরা দেখে মাঝে মধ্যে। যদি এমন হতো মাসে বেতন ২০ হাজার টাকা। কিন্তু কোম্পনি ভুল করে তিন কী পাঁচগুণ বেশি দিয়ে বসলো। এমনকী ফেরত নিলো না সেই টাকা। এমন স্বপ্ন যদি বাস্তবে ঘটে যায়! তাই হয়েছে সুদূর ল্যাটিন আমেরিকার দেশ চিলিতে। তিন বা পাঁচগুণ না, এক কর্মীকে একেবারে ২৮৬ গুণ বেতন দিয়ে বেকায়দায় পড়েছে একটি কোম্পানি। ওই কর্মী প্রথমে টাকা ফেরত দেবে জানালেও বর্তমানে লাপাত্তা।

চিলির একটি নামী সংস্থায় কাজ করত ওই যুবক। তার মাসিক বেতন ছিল ভারতীয় মুদ্রায় ৪০ হাজার রুপি। কিন্তু ঘটে যায় মারাত্মক বিভ্রাট। গোলমালে ওই যুবকের বেতন অ্যাকাউন্টে ঢোকে ২৮৬ গুণ বেশি অর্থ। যার পরিমাণ এক কোটি ৪২ লাখ রুপি। নিজের অ্যাকাউন্টে আচমকা এত টাকা ঢোকায় প্রথমে ঘাবড়ে যান যুবক। যোগাযোগ করে কোম্পানিকে সবটা জানান। কোম্পানি বিষয়টি খতিয়ে দেখে।

দেখা যায় বাস্তবেই ওই যুবকের অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করা হয়েছে এক কোটি ৪২ লাখ রুপি। এরপর কোম্পানির এইচআর ফের যোগাযোগ করে যুবকের সঙ্গে। দ্রুত ওই টাকা ফেরত দিতে অনুরোধ করে। কীভাবে দিতে হবে তাও জানানো হয়। ওই কর্মী তাতে রাজিও হন। যুবক জানান, ব্যাংকে গিয়ে বাড়তি টাকা ফেরত দেবেন কোম্পানিকে।

কিন্তু এরপরেই ঘটনা মোড় নেয় অন্যদিকে। টাকা ফেরত দেওয়ার উৎসাহে ভাটা দেখা যায় ওই কর্মীর মধ্যে। তাকে কোম্পানি থেকে যোগাযোগ করা হলে অবশ্য বলেন, দ্রুত টাকা ফেরত দেবেন। কিন্তু বাস্তবে অন্য ঘটনাই ঘটে। গত ২ জুন কাজে ইস্তফা দেন যুবক। এরপর টাকার বিষয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কোনো উত্তর মেলেনি তার দিক থেকে। বর্তমানে ওই যুবকের খোঁজ মিলছে না বলেই জানা গিয়েছে। বাধ্য হয়ে ওই যুবকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছে কোম্পানি।

এমএসএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]