সংক্ষিপ্ত বিশ্ব সংবাদ: ০১ জুলাই ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৪ পিএম, ০১ জুলাই ২০২২

আমাদের চারপাশে অসংখ্য ঘটনা ঘটছে প্রতিদিনই। এর মধ্যে হয়তো আলোচনায় আসে হাতেগোনা কিছু। তবে সময় ও পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে বেশকিছু বিষয়। এগুলো জানা না থাকলে অনেক ক্ষেত্রেই পিছিয়ে পড়তে হয়। এ কারণে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ঘটে যাওয়া নানা ঘটনা থেকে সংক্ষেপে গুরুত্বপূর্ণ কিছু সংবাদ থাকছে জাগো নিউজের পাঠকদের জন্য-

জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত নূপুর শর্মার: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট
মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের জন্য বিজেপির বহিষ্কৃত মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে কঠোর ভাষায় তিরস্কার করেছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। কৃতকর্মের জন্য গোটা জাতির কাছে তার ক্ষমতা চাওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। গত মে মাসে এক টেলিভিশন বিতর্কে মহানবী (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করেন নূপুর শর্মা। এরপর তার বিরুদ্ধে ভারতের বিভিন্ন স্থানে এফআইআর দায়ের হয়। সেসব এফআইআর দিল্লিতে স্থানান্তরের জন্য শুক্রবার (১ জুলাই) সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন তিনি।

ইউক্রেনের ওডেসায় রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১৪
ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর ওডেসাতে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় অন্তত ১৪ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার (১ জুলাই) ভোরের দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। দেশটির আঞ্চলিক এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কৃষ্ণসাগরের কৌশলগত ফাঁড়ি স্ন্যাক আইল্যান্ড থেকে রুশ সেনাদের প্রত্যাহার করার একদিন পরই এ হামলা চালানো হলো। যদিও ইউক্রেনের দাবি, তাদের বিতাড়িত করা হয়েছে।

ইউক্রেনের রুশনিয়ন্ত্রিত বন্দর দিয়ে শস্য রপ্তানি শুরু
রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে থাকা ইউক্রেনের বারদিয়ানস্ক সমুদ্রবন্দর দিয়ে শস্য রপ্তানি ফের শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সাত হাজার টন শস্য নিয়ে একটি জাহাজ ইউক্রেনীয় বন্দর থেকে ‘বন্ধুসুলভ দেশগুলোর’ পথে রওয়ানা হয়েছে। স্থানীয় রুশপন্থি প্রশাসনের প্রধান টেলিগ্রামের এক বার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ইউরোপে জ্বালানি সংকট চরমে, কী হবে আসন্ন শীতে?
রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান সংঘাত জ্বালানি যুদ্ধে রূপ নিয়েছে। পশ্চিমাদের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক ভয়াবহভাবে অবনতি হয়েছে। এরই মধ্যে ইউরোপের বেশ কিছু দেশে জ্বালানি সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে রাশিয়া। তাছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়ন চলতি বছরের মধ্যেই রাশিয়ার জ্বালানির ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে চায়। এতে পুরো ইউরোপ অঞ্চলেই জ্বালানি সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এমন পরিস্থিতিতে প্রশ্ন উঠছে আসন্ন শীতে ইউরোপের কী হবে, আগুন বা বাতি কি জ্বলবে?

উৎপাদন কমেছে এশিয়ায়, মন্দার ঝুঁকিতে যুক্তরাষ্ট্র-ইউরোপ
চলতি বছরের জুনে এশিয়ার উৎপাদন কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়ে। মূলত চীনের করোনা সম্পর্কিত লকডাউনে সরবরাহ বিঘ্নিত হওয়ায় এ অবস্থা তৈরি হয়। এদিকে অর্থনৈতিক কার্যক্রম ধীর হওয়ায় ঝুঁকি বাড়ছে ইউরোপে। তাছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে মন্দার সব লক্ষণ এরই মধ্যে সামনে এসেছে। যদিও এক জরিপে দেখা গেছে, চীনের কোম্পানিগুলোর কার্যক্রম জুনে ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। কিন্তু সরবরাহ ঘাটতি-মূল্য বৃদ্ধির কারণে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়ার ও তাইওয়ানের উৎপাদন কার্যক্রমে প্রভাব পড়েছে।

পাকিস্তানে তিন মাসে চারবার বাড়লো জ্বালানি তেলের দাম
পাকিস্তানে আবারও বাড়ানো হলো পেট্রল, ডিজেল, কেরোসিনের দাম। ১ জুলাই থেকে দেশটিতে জ্বালানি তেল কিনতে লিটারপ্রতি ১৪ থেকে ১৮ রুপি বেশি দিতে হবে জনগণকে। গত এপ্রিলে শাহবাজ শরিফ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে এ নিয়ে চারবার বাড়ানো হলো জ্বালানি তেলের দাম। পাকিস্তানি অর্থ মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ১ জুলাই (শুক্রবার) থেকে দেশটিতে পেট্রলের দাম লিটারপ্রতি ১৪ রুপি ৮৫ পয়সা বেড়ে ২৪৮ রুপি ৭৪ পয়সা হয়েছে। হাই স্পিড ডিজেলের দাম এখন থেকে লিটারপ্রতি ২৭৬ রুপি ৫৪ পয়সা, বাড়ানো হয়েছে ১৩ রুপি ২৩ পয়সা।

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও রাশিয়া থেকে যেসব দেশ জ্বালানি কিনছে
ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরু হয় গত ২৪ ফেব্রুয়ারি। দেশ দুটির যুদ্ধ গড়িয়েছে পঞ্চম মাসে। এখনো চলছে লড়াই। ইউক্রেনে হামলার কারণে রাশিয়ার ওপর পশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার পাহাড় জমেছে। তবে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও রাশিয়া থেকে মূল্যছাড়ে জীবাশ্ম জ্বালানি কিনছে বিভিন্ন দেশ। ইউক্রেন আগ্রাসনের শুরু থেকে গত ৪ জুন পর্যন্ত একশ দিনে ৯ হাজার ৭৭০ কোটি ডলারের জীবাশ্ম জ্বালানি বিক্রি করেছে রাশিয়া। সে হিসেবে দেশটি প্রতিদিন গড়ে ৯৭ কোটি ৭০ লাখ মার্কিন ডলারের জ্বালানি বিক্রি করেছে। এসব জীবাশ্ম জ্বালানির মধ্যে রয়েছে অপোরিশোধিত তেল, পাইপলাইনে গ্যাস নেওয়া, তেলজাত পণ্য, তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) এবং কয়লা।

চীনের ‘এক দেশ দুই নীতি’ হংকংকে সুরক্ষা দিয়েছে: শি জিনপিং
চীনের হংকংয়ের নিয়ন্ত্রণ পাওয়ার ২৫তম বার্ষিকী শুক্রবার (১ জুলাই)। এ উপলক্ষে হংকং সফরে গেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তিনি বলেছেন, চীনের ‘এক দেশ দুই নীতি’ হংকংকে সুরক্ষা দিয়েছে এবং এটি দীর্ঘমেয়াদী স্থিতিশীলতা ও উন্নতির নিশ্চয়তা দিতে পারে। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলটিতে সফরে যান দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তিনি আরও বলেছেন, ‘আগুন থেকে হংকং নতুন করে জন্ম নিয়েছে।’ গণতন্ত্রপন্থিদের বিক্ষোভের পর হংকংয়ে এটাই তার প্রথম সফর।

ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী ইয়ার ল্যাপিদ
ইসরায়েলের অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হলেন ইয়ার ল্যাপিদ। মাত্র এক বছর পর প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করেন তিনি। নাফতালি বেনেট বিদ্যমান চুক্তি অনুসারে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) ল্যাপিদকে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। সংসদ ভেঙে দেওয়ার পক্ষে ৯২-০ ভোট দেওয়ার পর এবং ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট পদত্যাগ করার পর ইসরায়েল ৩ বছরের মধ্যে পঞ্চমবারের মতো নতুন নির্বাচনের দিকে যাচ্ছে। আগামী ১ নভেম্বরের নির্বাচন পর্যন্ত বেনেটের পুরোনো জোটের অংশীদার ইয়ার ল্যাপিদই প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন।

কার্বন নিঃসরণ কমাতে বাইডেনের ক্ষমতা সীমিত করলেন সুপ্রিম কোর্ট
গ্রিনহাউস গ্যাসের নিঃসরণ কমাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ক্ষমতা সীমিত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশবিষয়ক সুরক্ষা সংস্থা (ইপিএ) কিছু ক্ষমতা হারিয়েছে। মনে করা হচ্ছে, এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ু পরিকল্পনার ওপর একটি বড় আঘাত। সুপ্রিম কোর্টের এ রায়ের প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এটিকে একটি ‘বিধ্বংসী সিদ্ধান্ত’ বলে অভিহিত করেছেন।তবে তিনি বলেছেন যে এটি জলবায়ু সংকট মোকাবিলার চেষ্টাকে দুর্বল করবে না।

কেএএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]