পড়াশোনার জন্য বিশ্বের সেরা শহর কোনগুলো?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:২৫ পিএম, ০২ জুলাই ২০২২

পড়াশোনার জন্য আবারও বিশ্বের সেরা শহর নির্বাচিত হয়েছে যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডন। দ্বিতীয় হয়েছে জার্মানির মিউনিখ, তৃতীয় দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউল। এ বছরের কিউএস বেস্ট স্টুডেন্ট সিটিজ র‌্যাংকিংয়ে উঠে এসেছে এসব তথ্য।

প্রতি বছর শিক্ষার্থীদের সামর্থ্য, আকাঙ্ক্ষা ও মতামতের মতো বিভিন্ন বিষয় বিবেচনা করে বসবাস ও পড়াশোনার জন্য বিশ্বের সেরা শহরগুলোর র‌্যাংকিং প্রকাশ করে যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডসের (কিউএস)। তবে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালের র‌্যাংকিং প্রকাশ করা হয়নি।

গত বুধবার (২৯ জুন) প্রকাশিত হয়েছে এ বছরের তালিকা। এতে আবারও শীর্ষস্থান দখল করেছে লন্ডন। ইউসিএল (ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন), ইম্পেরিয়াল কলেজ এবং কিংস কলেজসহ বেশ কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে শহরটিতে। তাই শিক্ষার্থীদের কাছে দীর্ঘদিন থেকেই প্রধান পছন্দের জায়গা এটি।

শীর্ষ দশে থাকা বাকি শহরগুলো হচ্ছে জুরিখ, মেলবোর্ন, বার্লিন, টোকিও, প্যারিস, সিডনি ও এডিনবার্গ।

এশিয়ার মধ্যে পড়াশোনার জন্য স্বাভাবিকভাবেই সেরা শহর হয়েছে সিউল। এরপর রয়েছে টোকিও, হংকং, সিঙ্গাপুর, কিয়োতো-ওসাকা-কোবে,, কুয়ালালামপুর, বেইজিং, তাইপেই, সাংহাই ও দুবাই।

১৪০ শহরের এ তালিকায় জায়গা পেয়েছে ভারতের চারটি শহর। দেশটির মধ্যে পড়াশোনার জন্য সেরা জায়গা নির্বাচিত হয়েছে মুম্বাই (১০৩তম), এরপর বেঙ্গালুরু ১১৪তম, চেন্নাই ১২৫তম এবং দিল্লি রয়েছে ১২৯তম স্থানে।

তালিকায় বাংলাদেশের কোনো শহরের নাম নেই। অন্তত আড়াই লাখ জনসংখ্যা এবং ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংয়ে অন্তত দুটি বিশ্ববিদ্যালয় থাকলেই কেবল সেই শহরকে র্যাঙ্কিংয়ের আওতায় আনে কিউএস। ৯৮ হাজারেরও বেশি সার্ভে রেসপন্স রয়েছে তাদের, যেখানে বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীদের মতামতের ভিত্তিতে নির্ধারিত হয় সূচক।

কেএএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]