নিউইয়র্কের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বন্দুক নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:২৫ পিএম, ০২ জুলাই ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের টাইমস স্কয়ারসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বন্দুক নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এজন্য অঙ্গরাজ্যটিতে একটি আইন পাস করা হয়েছে। তাছাড়া আগ্নেয়াস্ত্র ক্রেতাদের প্রমাণ করতে হবে, তারা বন্দুক ব্যবহার করতে পারেন। পর্যালোচনার জন্য তাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের অ্যাকাউন্টও জমা দিতে হবে। খবর রয়টার্সের।

শুক্রবার (২ জুলাই) পাস হওয়া আইনটিতে বলা হয়েছে সংবেদনশীল স্থান বিশেষ করে সরকারি ভবন, চিকিৎসা সুবিধা, উপাসনালয়, লাইব্রেরি, খেলার মাঠ, পার্ক, চিড়িয়াখানা, স্কুল, কলেজ, গ্রীষ্মকালীন ক্যাম্প, মাদক সহায়তা কেন্দ্র, গৃহহীন আশ্রয়কেন্দ্র, নার্সিং হোম, নিউ ইয়র্ক সিটির সাবওয়েসহ পাবলিক ট্রানজিট, যাদুঘর, থিয়েটার, স্টেডিয়াম, ভোটের স্থান ও টাইমস স্কয়ারে অস্ত্র বহনকে গুরুতর অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হবে। আইনটি কার্যকর হবে ১ সেপ্টেম্বর।

একটি জরুরি সভায় আইনটি পাস হয়। তবে গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালত অঙ্গরাজ্যটির বিভিন্ন অস্ত্রসংক্রান্ত বিধি-নিষেধ বাতিল করে। ওই রায়ে বলা হয় সংবিধান অনুযায়ী, আত্মরক্ষার্থে একজন নাগরিকের আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অধিকার রয়েছে।

পরে নিউইয়র্কের ডেমোক্র্যাটিক নেতারা রায় ও আদালতের নিন্দা করে জানায়, যদি বেশি সংখ্যক মানুষ বন্দুক ব্যবহার করে তাহলে সহিংসতার পরিমাণ আরও বাড়বে।

তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, নতুন এসব বিধিনিষেধ শেষ পর্যন্ত নতুন আইনি চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে পারে।

মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের গত মাসের রায় বস্তুত আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অধিকার আরও সম্প্রসারিত করেছে। এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে আগ্নেয়াস্ত্র বিষয়ে এটি ছিল মার্কিন শীর্ষ আদালতের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রায়।

এমএসএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]