৩ বছরে ৩২৯ বাঘ হারিয়েছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩৫ এএম, ২৭ জুলাই ২০২২

প্রকৃতিগত কারণে হোক বা মানবসৃষ্ট কারণেই হোক গত ৩ বছরে ৩২৯টি বাঘ হারিয়েছে ভারত। এদের মধ্যে ২৯টি বাঘ শিকার করা হয়েছে। একই সময়ে ৩০৭টি হাতি মারা গেছে শিকার, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট, বিষপান এবং ট্রেন দুর্ঘটনায়।

দেশটির কেন্দ্রীয় পরিবেশবিষয়ক মন্ত্রী অশ্বিনী কুমার চৌবে সোমবার (২৫ জুলাই) লোকসভার অধিবেশনে এ তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন। তিনি আরও জানান, ২০১৯ সালে ৯৬টি, ২০২০ সালে ১০৬টি এবং ২০২১ সালে ১২৭টি বাঘের মৃত্যু হয়েছে।

মন্ত্রী আরও জানান, ৬৮টি বাঘ প্রাকৃতিক কারণে মারা গেছে, সেখানে পাঁচটির অস্বাভাবিক মৃত্যু এবং ২৯টি শিকার করা হয়েছে। এ ছাড়া ৩০টি ‘আটক’ হয়েছে। ১৯৭টি বাঘের মৃত্যুর তদন্ত চলছে।

দেশটির তথ্য-উপাত্ত বলছে, তবে ২০১৯ সালে মানুষের শিকার হয়েছিল ১৭টি। সেটি কমে ২০২১ সালে হয়েছে চারটি।

মন্ত্রীর উত্থাপিত তথ্য বলছে, এই সময়ের মধ্যে ১২৫ জন মানুষ বাঘের আক্রমণে নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬১ জন মহারাষ্ট্রে এবং ২৫ জন উত্তরপ্রদেশে।

সরকারের তথ্য অনুযায়ী, গত ৩ বছরে ২২২টি হাতি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছে। এদের মধ্যে উড়িষ্যায় ৪১, তামিল নাড়ুতে ৩৪ এবং অন্যান্য জায়গায় ৩৩টি হাতি মারা গেছে।

৪৫টি হাতি মারা গেছে ট্রেন দুর্ঘটনায়। উড়িষ্যায় ১২ ও পশ্চিমবঙ্গে মারা গেছে আরও ১১টি।

এ ছাড়া ২৯টি হাতি মানুষের শিকার হয়েছে, যার মধ্যে মেঘালয়ে ১২টি, উড়িষ্যায় ৭টি। আসামে বিষপানে মারা গেছে আরও ১১টি হাতি।

সূত্র: এনডিটিভি

এসএনআর/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।