একই বোতলে পানি খাওয়ায় ছাত্রকে পিটিয়ে মারলেন শিক্ষক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩১ এএম, ১৪ আগস্ট ২০২২
প্রতীকী ছবি

বোতল থেকে পানি খাওয়ায় শিক্ষকের হাতে মার খেয়ে ৯ বছরের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, শিশুটি দলিত সম্প্রদায়ের হওয়ায় নির্যাতনের শিকার হয়। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানে। এ ঘটনায় নিন্দার ঝড় বইছে ভারতজুড়ে।

রাজস্থান পুলিশ বলছে, ওই শিক্ষার্থীর পরিবার অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে। যাতে মারধরের কারণ হিসেবে পানি খাওয়াকেই উল্লেখ করা হয়েছে। এরই মধ্যে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটে ২০ জুলাই। এদিনে রাজস্থানের জালোর জেলার সায়লা গ্রামের একটি বেসরকারি স্কুলের শিক্ষক ওই ছাত্রকে বেধড়ক মারধর করেন। এতে চোখ ও কানে গুরুতর আঘাত পায় শিশুটি।

স্কুলের অন্য শিক্ষার্থীদের থেকে জানা যায়, ওই ছাত্র বোতল থেকে পানি খেয়েছিল। শুধু এই অভিযোগেই তাকে পেটানো শুরু করেন অভিযুক্ত শিক্ষক।

এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীকে চিকিৎসার জন্য আহমেদাবাদ পাঠানো হয়। সেখানে প্রায় ২০ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ার পর শনিবার তার মৃত্যু হয়।

দলিত শব্দের দ্বারা ভারতের এমন কিছু গোষ্ঠীকে বোঝানো হয়, যারা সচরাচর নিপীড়িত এবং অনগ্রসর জাতিরূপে চিহ্নিত। দলিতদের অনেকে আবার হিন্দু ধর্মের চারি বর্ণ ব্যবস্থা থেকে আলাদা বলে এবং পঞ্চম বর্ণ হিসেবে দেখায়, যা পঞ্চমা নামেও পরিচিত।

এদিকে এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। তিনি জানান, দ্রুত এর বিচার হবে।

এছাড়া শিশুটির পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা আর্থিক সাহায্য করার ঘোষণাও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

জেডএইচ/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।