‘দেশের স্বার্থ আগে’ রাশিয়ার তেল কেনা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৩৬ এএম, ১৮ আগস্ট ২০২২
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর/ ছবি- সংগৃহীত

রাশিয়া থেকে কম মূল্যে অশোধিত তেল কেনা নিয়ে আবারও নিজের অবস্থান স্পষ্ট করল ভারত। হু হু করে যেভাবে তেলের দাম বাড়ছে, তাতে দেশের মানুষের স্বার্থ আগে ভেবে দেখা উচিত।

রাশিয়া থেকে তেল কেনা নিয়ে পশ্চিম ইউরোপের দেশ গুলির সমালোচনার জবাব দিতে এভাবেই এবার মুখ খুললেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর।

ব্যাংককে অনাবাসী ভারতীয়দের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে জয়শঙ্কর বলেন, আমরা রক্ষণাত্মক ভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছি না। দেশের মানুষের স্বার্থ সম্পর্কে আমরা অবগত। আমাদের দেশের মাথাপিছু গড় আয় ২ হাজার ডলার। এখানে অনেক মানুষ রয়েছেন, যাদের বেশি দামে জ্বালানি কেনার সামর্থ নেই। এটা আমার বাধ্যবাধকতা, আমার নৈতিক কর্তব্য যে তাদের জন্য যেটা সেরা সেটাই আমি করব।

রাশিয়া থেকে তেল কেনা নিয়ে নয়া দিল্লির সিদ্ধান্তের সমালোচনা প্রসঙ্গে জয়শঙ্কর বলেন, সততার সঙ্গে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে ভারত। ওরা (পশ্চিম ইউরোপের দেশ গুলি) হয়তো প্রথমে প্রশংসা করবে না। কিন্তু তার জন্য চালাকির আশ্রয় নেওয়ার প্রয়োজন নেই। আমার বিশ্বাস বাস্তবটা মেনে নিয়ে বিশ্ব এটাকে মেনে নেবে।

পশ্চিমী দেশগুলির ‘আপত্তি’ উড়িয়ে রাশিয়া থেকে তেল কেনা প্রসঙ্গে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে জয়শঙ্কর আরও বলেন, এমন একটা সময়ে আমরা দাঁড়িয়ে রয়েছি, যেখানে তেলের দাম আকাশছোঁয়া। দাম বাড়ছে গ্যাসেরও। এশিয়ার অনেক তেল সরবরাহকারী ইউরোপের দিকে ঝুঁকেছে। পশ্চিম এশিয়া ও অন্যান্য উৎস, যারা ভারতে তেল সরবরাহ করত তাদের থেকে বেশি পরিমাণে কিনছে ইউরোপ। এমন একটা পরিস্থিতি যেখানে সব দেশেই নিজেদের নাগরিকদের জন্য সেরাটা দেখবে। আমরাও সেটা করছি।

প্রসঙ্গত, রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের আবহে রাশিয়াকে নানাভাবে কোণঠাসা করতে শুরু করেছে পশ্চিমী দেশগুলি। এ পরিস্থিতিতে রাশিয়া থেকে সস্তায় অশোধিত তেল কেনায় নয়া দিল্লির সমালোচনায় সরব হয় আমেরিকাসহ পশ্চিমী দেশগুলি। এর আগেও এ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন তিনি।

তিনি বলেন, ইউরোপ এক সন্ধ্যায় যতটা অশোধিত তেল রাশিয়া থেকে আমদানি করে, গোটা মাসে ভারত করে তার থেকে কম।

অন্যদিকে ব্যাংককে জয়শঙ্করের মন্তব্যের পর ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা বলেছেন, ভারতের থেকে বেশি পরিমাণ সমর্থন আশা করেছিল তার দেশ। তিনি বলেছেন, রাশিয়ার অশোধিত তেল কিনছে ভারত। আমরা এ ব্যাপারে অবগত। আমরা এতে অবাক হইনি। বেশি ছাড়ে ভারত যে রাশিয়ার অশোধিত তেল কিনছে, তাতে তাদের বোঝা উচিত যে এ ছাড়গুলির মূল্য চুকিয়েছে ইউক্রেনিয়ানদের রক্ত।

এমআইএইচএস/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।