ইরাকে কুর্দি হামলায় তুরস্কের চার সেনা নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:০৭ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২
সংগৃহীত

ইরাকের স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তান অঞ্চলে পিকেকে গেরিলাদের হামলায় তুরস্কের অন্তত চার সেনা নিহত হয়েছেন। তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইনফ্যান্ট্রি স্পেশালিস্ট সার্জেন্ট হারুন ইলদিরিম ও ইনভেন্টরি স্পেশালিস্ট সার্জেন্ট সাভাস বরলু কুর্দি গেরিলাদের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় নিহত হয়েছেন। তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পরবর্তীতে জানিয়েছে যে, গেরিলাদের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় আহত কমান্ড সার্জেন্ট মেজর গো খান ওজিল ও স্পেশালিস্ট সার্জেন্ট ফাতিহ কালকান হাসপাতালে মারা গেছেন।

গত এপ্রিল মাস থেকে তুরস্কের সামরিক বাহিনী ইরাকের কুর্দিস্তান অঞ্চলে কয়েক দফায় কুর্দি গেরিলাবিরোধী অভিযান পরিচালনা করছে। সেই থেকে পিকেকে গেরিলা ও তুর্কি সামরিক বাহিনীর মধ্যে কম-বেশি সংঘর্ষ অব্যাহত রয়েছে।

পিকেকে ১৯৮৪ সালে তুর্কি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সশস্ত্র বিদ্রোহ শুরু করে। তখন থেকেই স্বাধীনতা দাবি করে আসছে গোষ্ঠীটি। দুই পক্ষের সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও তুরস্ককে পেকেকে গেরিলাদের সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসাবে আখ্যায়িত করেছে।

যদিও ইরাকের ভেতরে তুরস্কের এই অভিযানকে বাগদাদ সরকার ও ইরাকের প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো ভালো চোখে দেখছে না। বাগদাদ ও প্রতিরোধে আন্দোলনগুলোর পক্ষ থেকে বারবার তুরস্কের প্রতি সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হয়েছে।

ইরাকি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তুরস্ক ইরাকের সার্বভৌমত্বকে চরমভাবে লঙ্ঘন করছে। জুলাইয়ে উত্তর ইরাকের দুহোক প্রদেশের একটি রিসর্টে হামলার পর বাগদাদে আঙ্কারার রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ইরাক।

এমএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।