নাইজেরিয়ায় মসজিদে সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলা, নিহত ১৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩৫ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জামফারা রাজ্যের একটি মসজিদে সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন। বুক্কুয়ুমের রুয়ান জেমা শহরের জুমুআত কেন্দ্রীয় মসজিদে গত শুক্রবার জুমার নামাজের সময় এ হামলার ঘটনা ঘটে। শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) স্থানীয়দের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স।

আমিমু মুস্তাফা নামে এক স্থানীয় ব্যক্তি জানান, ‘সশস্ত্র গোষ্ঠীর সদস্যরা মোটরবাইকে এসে বন্দুক নিয়ে মসজিদের ভেতর প্রবেশ করে এবং বিক্ষিপ্তভাবে আমাদের গুলি করতে শুরু করে’।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক বাসিন্দা জানান, দুপুর ২টার দিকে হামলার ঘটনা ঘটে। আরও অনেকে আহত হয়েছেন এ হামলায়।

জামফারা রাজ্য পুলিশের মুখপাত্র এ বিষয়ে কোনো তথ্য দিতে নারাজ। রয়টার্সের তরফে যোগাযোগ করা হলে কোনো মন্তব্য করেনি রাজ্য পুলিশ।

স্থানীয়ভাবে ডাকাত নামে পরিচিত ভারী অস্ত্রধারীরা গত দুই বছরে উত্তর-পশ্চিম নাইজেরিয়া জুড়ে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। হাজার হাজার মানুষকে অপহরণ করেছে তারা। শত শত
মানুষকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

গত সপ্তাহে জামফারা ও অন্যান্য দুটি রাজ্যের বাসিন্দাদের বনদস্যু ও সন্ত্রাসীদের লক্ষ্য করে বোমা হামলা ও অভিযান চালানোর আগে বনাঞ্চল ছেড়ে যাওয়ার জন্য সতর্কবার্তা দিয়েছিল সরকারি বাহিনী।

তবে এ হামলার দায় এখনো কোনো গোষ্ঠী স্বীকার করেনি।

প্রতিবেশী দেশ মালি ও বারকিনা ফাসোর মতো নাইজেরিয়াও ইসলামী জঙ্গি গোষ্ঠী আল কায়েদা ও আইএসের নিয়মিত টার্গেটে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ করছেন স্থানীয়রা।

২০১২ ও ২০১৩ সালের পর থেকে আফ্রিকার বড় একটি অংশের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো। এরপর থেকেই সেখানকার সাধারণ মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। গ্রামগুলোতে অভিযান চালিয়ে অপহরণ, গরু চুরি ও ঘরবাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটছে। তাছাড়া প্রায়ই সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে নিহত হচ্ছে সাধারণ মানুষ।

এসএনআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।