আবারও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়লো উত্তর কোরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০৫ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
সংগৃহীত

 

চলতি বছরের জুন মাসের পর আবারও উত্তর কোরিয়া স্বল্প-পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সফর এবং আমেরিকান বিমানবাহী দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে নৌ মহড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমন খবরে উত্তর কোরিয়ার এ পদক্ষেপ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জুনের শুরুতে আটটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার পর রোববার আবারও একই ঘটনা ঘটিয়েছে দেশটি। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, পিয়ংইয়ংয়ের প্রায় ১০০ কিলোমিটার (৬০ মাইল) উত্তরে, পূর্ব উপকূলের দিকে তাইচন থেকে অন্তত একটি স্বল্প-পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়।

জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীও বিষয়টি নিশ্চিত করেন। যুক্তরাষ্ট্রের রোনাল্ড রিগ্যান বিমানবাহী রণতরী এই সপ্তাহে প্রায় পাঁচ বছরের মধ্যে প্রথম সম্মিলিত নৌ মহড়ার জন্য দক্ষিণ কোরিয়ায় পৌঁছানোর সময় এই উত্তর কোরিয়ার এই পদক্ষেপ। জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের শেষকৃত্যে অংশ নেওয়ার জন্য কমলা হ্যারিস এ সপ্তাহে টোকিওতে থাকবেন।

২০২২ সালে, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন অন্য যে কোনো বছরের চেয়ে বেশি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎপেক্ষপণ করেছেন। তিনি মার্কিন-চালিত ইন্টারসেপ্টর এড়াতে ডিজাইন করা রকেট পরীক্ষা করেছেন। এটি এশিয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্রদের বিরুদ্ধে একটি বিশ্বাসযোগ্য পারমাণবিক হামলার হুমকি বাড়িয়েছে।

সাবমেরিন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার প্রস্তুতিও নিচ্ছে উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী এ সম্পর্কিত কর্মকাণ্ডের উপস্থিতি লক্ষ্য করতে পেরেছে। এদিকে, শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) নিজেদের পারমাণবিক অস্ত্রধারী রাষ্ট্র ঘোষণা করেছে উত্তর কোরিয়া। এরই মধ্যে এ সম্পর্কিত একটি আইন পাস হয়েছে দেশটিতে।

পরমাণু ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির কারণে ২০০৬ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার মধ্যে রয়েছে উত্তর কোরিয়া। এসব কর্মসূচিতে অর্থায়ন বন্ধ করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদও ধারাবাহিকভাবে বিধিনিষেধ বাড়িয়েছে। কিন্তু সব নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে উত্তর কোরিয়া।

সূত্র: ব্লুমবার্গ

এসএনআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।