ব্রাজিলে ভোট আজ, প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে লুলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৩ পিএম, ০২ অক্টোবর ২০২২
সংগৃহীত

ব্রাজিলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে রোববার (২ অক্টোবর)। ভোটগ্রহণের একদিন আগে সবশেষ জরিপের তথ্য বলছে, দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট লুইজ ইনাসিও লুলা দা সিলভা প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন। জরিপের ফলাফল যদি ঠিক থাকে প্রথম রাউন্ডের ভোটেই জয় নিশ্চিত করে ফেলতে পারেন লুলা।

জরিপ সংস্থা ডাটাফোলা বলছে, বৈধ ভোটের ৫০ শতাংশ লুলাকে বেছে নিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারোর পক্ষে মত দিয়েছেন ৩৬ শতাংশ। রান-অফ এড়াতে একজন প্রার্থীর ৫০ শতাংশের বেশি ভোট প্রয়োজন।

এটি ছিল ডাটাফোলার সবচেয়ে বড় জরিপ ভোটের কার্যক্রম। যেখানে ৩১০টি শহরে ১২ হাজার আটশ ব্রাজিলিয়ান ব্যক্তিগতভাবে মতামত দিয়েছেন। এটির বিশ্বাসযোগ্যতা শতকরা ৯৫ ভাগ বলে ধরা হচ্ছে।

অপরদিকে, আরেকটি সংস্থা আইপিইসির ফলাফল বলছে, লুলার পক্ষে ৫১ শতাংশ বৈধ ভোটারের সমর্থন রয়েছে। সেখানে বলসোনারোর পক্ষে সমর্থন রয়েছে ৩৭ শতাংশের। আইপিইসির জরিপে অংশ নেয় ৩ হাজার ৮ জন। জরিপ পরিচালনা করা হয় ১৮৩টি শহরে।

যদিও উভয় ভোটে ২ শতাংশ ভোট ত্রুটির কারণে এদিক-সেদিক হতে পারে। তবে জরিপের তথ্য ইঙ্গিত দেয় যে রানঅফের প্রয়োজন ছাড়াই জিততে পারেন লুলা।

আরেকটি সংস্থার জরিপ বলছে, লুলা বৈধ ৪৯ শতাংশ ভোটের স্কোর করেছেন। যেখানে বলসোনারো ৩৮ শতাংশ সমর্থন পেয়েছেন।

লুলার সমর্থকরা তার ৫০ শতাংশ ভোট নিশ্চিত করতে চাইছেন আর বলসোনারো সেই ফাঁক পূরণ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

নির্বাচনী নিয়ম অনুযায়ী, প্রথম দফায় কোনো প্রার্থী ৫০ শতাংশ বা তার বেশি ভোট না পেলে ৩০ অক্টোবর দ্বিতীয় দফা ভোট হবে। এতে সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া দুই প্রার্থীই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

‘দারিদ্র্যের শত্রু’ নামের সবার কাছে পরিচিত লুলা। অপরদিকে, বর্তমান প্রেসিডেন্ট বলসোনারো আমাজন ‘বনখেকো’ বলেও চিহ্নিত হয়েছেন। এ ছাড়া করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতাসহ আরও বেশ কয়েকটি কারণে বলসোনারোর জনপ্রিয়তা কমে গেছে সম্প্রতি। তবে আবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাকে বেছে নেয় দেশটির জনগণ সেটাই দেখার বিষয়।

সূত্র: ব্লুমবার্গ

এসএনআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।