ভারতে আদানি বন্দরের বিরোধিতাকারী-পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৮০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

দক্ষিণ ভারতের কোচিতে আদানি গ্রুপের বন্দর নির্মাণকে ঘিরে সোমবার (২৮ নভেম্বর) পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসীদের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৮০ জন।

কয়েক বাস ধরে সেখানের গ্রামবাসীরা এই বন্দর নির্মাণের বিরোধিতা করে আসছিল। নির্মাণ কাজে বাধা প্রদান করলে এই সংঘর্ষ হয়।

গ্রামবাসীদের অধিকাংশই খ্রিস্টান জেলে। তাদের অভিযোগ, এই বন্দর নির্মাণের ফলে উপকূলে ভাঙন শুরু হয়েছে, ফলে তাদের জীবন জীবিকা ব্যাহত হচ্ছে।

এদিকে গ্রামবাসীদের বাধা ও বিক্ষোভ গৌতম আদানির জন্য বড় চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান সেখানে একটি বন্দরসহ লজিস্টিক কোম্পানি নির্মাণের জন্য ২৩ বিলিয়ন ডলার খরচ করছে। কিন্তু গ্রামবাসীদের প্রতিবাদ ও বিরোধিতার কারণে কয়েকমাস ধরে নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। তারা নির্মাণকর্মীদের ও নির্মাণ সামগ্রী বহনকারী যান নির্মাণস্থলে ঢুকতে বাধা দিচ্ছে।

জানা গেছে, নির্মাণ কাজ শুরু করা সংক্রান্ত কেরালার প্রাদেশিক আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে কাজে বাধা অব্যাহত রাখলে পুলিশ বেশ কয়েকজন গ্রামবাসীকে আটক করে।

পুলিশের নথি ও স্থানীয় টেলিভিশনের খবরে জানা গেছে, এর প্রতিবাদে শত শত মানুষ কয়েকজন রোমান ক্যাথলিক যাজকের নেতৃত্ব স্থানীয় থানা অভিমুখে যাত্রা করে। তারা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় ও কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে।

পুলিশ কর্মকর্তা এম আর অজিত কুমার জানান, ৩৬ পুলিশ কর্মকর্তা এই সংঘর্ষে আহত হয়। অন্যদিকে, বিক্ষোভকারীদের নেতা জোসেফ জনসন বলেন, তাদের কমপক্ষে ৩৬ জন আহত হয়েছে৷

নির্মাণাধীন এই বন্দরের মাধ্যমে বর্তমানে বিশ্বের তৃতীয় শীর্ষ ধনী গৌতম আদানি দক্ষিণ-পশ্চিমের লাভজনক ব্যবসার রুট কব্জা করে বিশ্বব্যাপী ব্যবসাকে আরও নাগালের মধ্যে আনতে চান।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে, রয়টার্স

এমএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।