বিবিসির প্রভাবশালী নারীর তালিকায় বাংলাদেশের সানজিদা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৪১ এএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২

বাংলাদেশ একটি বাল্যবিয়ে প্রবণ দেশ। অনেক কিশোরীই বাল্যবিয়ের শিকার হন বাংলাদেশে। বাল্যবিয়ে বন্ধে কাজ করার জন্য বাংলাদেশের সানজিদা ইসলাম ছোঁয়া বিবিসির একশ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় জায়গা করে নিলেন এ বছর।

জানা গেছে, সানজিদার মায়েরও বিয়ে হয়েছিল অল্প বয়সে। স্কুলে পড়ার সময় বাল্যবিয়ের ব্যাপারে সচেতনতামূলক একটি ডকুমেন্ট দেখে বিষয়টি নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী হন সানজিদা ছোঁয়া।

ছোঁয়া ও তার বন্ধু, শিক্ষক ও সহযোগীরা নিজেদের ঘাসফড়িং হিসেবে পরিচয় দেন। বাল্যবিয়ের খবর পেলে ছুটে যান তারা এবং পুলিশকে জানান।

সানজিদা ইসলামের বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নের ঝাউগড়া গ্রামে। এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হয়েও ছোঁয়া ঘাসফড়িংয়ের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

দলের নতুন সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেন তিনি। এখন পর্যন্ত প্রায় ৫০টির মতো বাল্যবিয়ে ঠেকিয়েছেন সানজিদা ও তার দল।

বিবিসির এ তালিকায় ২০২২ সালে বিভিন্ন সংঘাতপূর্ণ স্থানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা নারীদের তুলে আনা হয়েছে। ইরানের পট পরিবর্তনের দাবীতে সাহসীকতার সঙ্গে বিক্ষোভ করে যাওয়া নারী থেকে শুরু করে ইউক্রেন ও রাশিয়ায় সংঘাত ও প্রতিরোধে ভূমিকা রাখা নারীরা এবারের তালিকায় স্থান পেয়েছেন।

বিবিসির এবারের তালিকায় স্থান পাওয়া আরও অনেকের মধ্যে আছেন ইউক্রেনের ফার্স্ট লেডি ওলেনা জেলেনস্কা, বলিউডের অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, ইরানের পর্বত আরোহী এলনাজ রেকাবি, ফিলিস্তিনের লিনা আবু আকলেহ, সিরিয়ার দৌড়বিদ দিমা আকতা, ইয়েমেনের আইনজীবী মাঈন আল-ওবাইদি, ইরানের অভিনেত্রী জার আমির-ইব্রাহিমি, আফগানিস্তানের শিক্ষার্থী ফাতিমা আমিরি, মিয়ানমারের চিকিৎসক আয়ে নিন থু, ভারতের বিমান প্রকৌশলী সিরিশা বন্দলা ও রাশিয়ার সাংবাদিক তাইসিয়া বেকবুলাতোয়া।

 

সূত্র: বিবিসি

এসএনআর/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।