টুইটারের আরও এক শীর্ষ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত ইলন মাস্কের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১৩ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২
ছবি: সংগৃহীত

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার কেনার পর বিশ্বব্যাপী হাজার হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছেন টেসলা ও স্পেসএক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক। এর মধ্যে রয়েছেন টুইটারের সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও আইনি প্রধান বিজয়া গাড্ডেসহ বেশ কিছু শীর্ষ কর্মকর্তাও। কোনো ধরণের পূর্ব নোটিশ ছাড়াই তাদের চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এবার টুইটারের ডেপুটি জেনারেল কাউন্সেল জেমস বেকারকে বরখাস্ত করার কথা জানালেন মাস্ক। খবর এনডিটিভির।

ইলন মাস্ক এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, আগের পরিচালকদের অধীনে তথ্য গোপন সংক্রান্ত উদ্বেগের কারণে বেকারকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হান্টার বাইডেনের ল্যাপটপের ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কিত তথ্য চাপা দেওয়ার ক্ষেত্রে বেকার মূল ভূমিকা পালন করেছিলেন। ঘটনাটি টুইটারের হ্যাক করা সামগ্রীর নীতির আওতায় পড়ে কি না তা নিয়ে আলোচনায় বেকার প্রধান ভূমিকা পালন করেছিলেন বলেও জানা গেছে।

ইলন মাস্ক এক টুইট বার্তায় আরও বলেন, জনসাধারণের সংলাপের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চাপা দেওয়ার ইস্যুতে জেমস বেকারের সম্ভাব্য ভূমিকা নিয়ে উদ্বেগের কারণে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, টুইটারের অর্ধেক কর্মী ছেঁটে ফেলতে পারেন নতুন মালিক ইলন মাস্ক। কয়েকদিন আগে সংবাদমাধ্যম সিএনবিসির প্রতিবেদনে বলা হয় ৩৭০০ কর্মী ছাঁটাই করতে যাচ্ছেন মাস্ক।

নিউইয়র্ক টাইমসও একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, নভেম্বরের গোড়া থেকে ছাঁটাইয়ের পথে যেতে পারেন মাস্ক। তখন অবশ্য এই খবর অস্বীকার করেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী।

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রথম ধাপে সংস্থার মোটকর্মীর এক-তৃতীয়াংশকে ছাঁটাই করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তারপর ধীরে ধীরে কর্মীসংখ্যা অর্ধেক করা হবে। এর অংশ হিসেবেই টুইটারের কর্মী ছাঁটাই প্রক্রিয়া চলছে।

এমএসএম

 

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।