প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ হতে পারে সোমবার

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২৮ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদের নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রস্তুত হয়েছে। সোমবার বিকেলে (২৮ নভেম্বর) তা প্রকাশ করা হতে পারে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নিয়োগ কমিটির এক সদস্য ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) কর্মকর্তা রোববার (২৭ নভেম্বর) জাগো নিউজকে এ কথা জানান।

তিনি বলেন, সহকারী শিক্ষক পদের চূড়ান্ত ফল তৈরির সব কাজ শেষ। গত বৃহস্পতিবার বুয়েটে গিয়ে ফলাফল যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। সোমবার বিকেলের মধ্যে এটি প্রকাশ করা হবে।

এদিকে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, পদ সংখ্যা বাড়ানোর দাবিতে চাকরিপ্রার্থীরা গত কয়েক দিন ধরে আন্দোলন করছেন। এ জন্য এক রকম চুপিসারে নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে চান প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব। যে কারণে আগামীকাল দুপুর থেকে বিকেলের মধ্যে যে কোনো সময় ফল প্রকাশ হতে পারে।

এ নিয়োগে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা তিন ধাপে হলেও চূড়ান্ত ফল একবারেই প্রকাশ হবে। প্রথম ধাপের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন ৪০ হাজার ৮৬২ জন, আর দ্বিতীয় ধাপে ৫৩ হাজার ৫৯৫ এবং তৃতীয় ধাপে ৫৭ হাজার ৩৬৮ জন উত্তীর্ণ হন।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৯-এর ৮ ধারার ২ নম্বর উপধারার (ঘ)-তে বলা হয়েছে, নির্ধারিত কোটার শিক্ষকদের মধ্যে প্রত্যেক ক্যাটাগরিতে (নারী ৬০ শতাংশ, পোষ্য ২০ শতাংশ ও অবশিষ্ট পুরুষ) অবশ্যই ২০ শতাংশ বিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রিধারী প্রার্থীদের নিয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। তবে শর্ত থাকে, এভাবে ২০ শতাংশ কোটা পূরণ না হলে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া যাবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জানা যায়, সহকারী শিক্ষকের পদসংখ্যা বাড়িয়ে ৪৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের কথা থাকলেও এটি হচ্ছে না। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত পদেই নিয়োগ হচ্ছে। সে অনুসারে ৩২ হাজার ৫৭৭ পদেই নিয়োগ দেওয়া হবে।

২০২০ সালের ২০ অক্টোবর সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্য পদে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

এমএইচএম/জেডএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।