বনানীর সিদ্দিক মুন্সি হত্যার পরিকল্পনাকারীর জবানবন্দি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৭ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০১:৩০ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭
ফাইল ছবি

রাজধানীর বনানীর আদম ব্যবসায়ী সিদ্দিক হোসেন মুন্সি হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হেলাল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রোববার তিন দিনের রিমান্ড শেষে তাকে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে জবানবন্দি রেকর্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির সহকারী পুলিশ কমিশনার গোলাম সাকলাইন সিথিল। আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারী তার জবানবন্দি গ্রহণ করেন। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

এর আগে গত ৫ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাকে রাজধানীর কালাচাঁদপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে ৫টি আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি উত্তর)।

অস্ত্র মামলায় তাকে দুই দফায় চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরপর হত্যা মামলায় তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

উল্লেখ্য, গত ১৪ নভেম্বর রাতে ‘এমএস মুন্সি ওভারসিজ’ নামে রিক্রুটিং এজেন্সির কর্ণধার সিদ্দিক হোসেন মুন্সিকে (৫০) গুলি করে হত্যা করে চার দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ওই প্রতিষ্ঠানের তিন কর্মকর্তা মির্জা পারভেজ (৩০), মোখলেসুর রহমান (৩৫) ও মোস্তাফিজুর রহমান (৩৯) গুলিবিদ্ধ হন।

এ ঘটনায় ১৫ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টার দিকে বনানী থানায় নিহত ব্যবসায়ী সিদ্দিকের স্ত্রী জোৎস্না বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত চারজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহতের গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, নিহত সিদ্দিকুরের বুকের বামপাশে একটি গুলি ঢুকে পিঠের ডান পাশ দিয়ে বের হয়ে যায়। আর একটি গুলি তার বাম হাতে লাগে। সিসিটিভির ফুটেজে চারজন সন্দেহভাজন হত্যাকারীকে চিহ্নিত করে পুলিশ। তাদের গ্রেফতারে নগরবাসী তথা জনসাধারণের সহায়তা চায় ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে গত ২৩ নভেম্বর বনানী থানা পুলিশের কাছ থেকে সিদ্দিক হোসেন মুন্সি হত্যা মামলার তদন্ত ভার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়।

জেএ/এএইচ/জেআইএম