হাওরের বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতি : ৬১ জনের মামলা স্থগিতের বিষয় আপিলে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:২৩ পিএম, ২১ ডিসেম্বর ২০১৭
হাওরের বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতি : ৬১ জনের মামলা স্থগিতের বিষয় আপিলে

সুনামগঞ্জের হাওরে বাঁধ নির্মাণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সিলেট-সুনামগঞ্জ অঞ্চলের ১৫ কর্মকর্তা ও ৪৬ ঠিকাদারসহ ৬১ জনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে শুনানি হবে ২ জানুয়ারি। ওই দিন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানির জন্য দিন ধার্য করে দিয়েছেন চেম্বার বিচারপতির আদালত।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদকের) করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তা শুনানি করে বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দারের চেম্বারজজ আদালত এই আদেশ দেন। আদালতে আজ দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশিদ আলম খান, অন্যদিকে ছিলেন ব্যারিস্টার রফিক-উল-হক ও অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার।

বিষযটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য আগামী ২ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

এর আগে সুনামগঞ্জে বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতির ঘটনা নিয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে চলতি বছরের ১৩ এপ্রিল অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক। অনুসন্ধানে ওই প্রতিবেদনের সত্যতা মেলে। সেই সূত্রেই মামলা করা হয় ৬১ জনের বিরুদ্ধে।

পরে মেসার্স ইব্রাহীম ট্রেডার্স অ্যান্ড শামীম আহসানের প্রোপ্রাইটার আসামি মো. বাচ্চু মিয়ার রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১২ ডিসেম্বর হাইকোর্ট মামলার কার্যক্রম তিন মাসের জন্য স্থগিত করেন। একই সঙ্গে, কেন এই মামলা বাতিল করা হবে না এ মর্মে রুলও জারি করেন আদালত।

হাইকোর্টের বিচারপতি মালামা মাসুদ চৌধুরী ও একেএম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। হাইকোর্টের ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের চেম্বার যায় দুদক।

দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান জানান, মামলাটি এখনো তদন্তাধীন রয়েছে। তাই আপিল বিভাগের নির্দেশের পর বাকি সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এফএইচ/জেএইচ/আইআই