বিএনপি নেতা হাফিজ ইব্রাহিমের ৫০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪১ পিএম, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য হাফিজ ইব্রাহিমকে ৫০ লাখ টাকার অর্থদণ্ড দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন। আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের জানান, হাফিজ ইব্রাহিমের আবেদন আংশিক মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট। তথ্য গোপনের অভিযোগে তার তিন বছরের সাজা বহাল রাখা হয়েছে। কিন্তু তিনি দুই বছরের বেশি সাজা খেটে ফেলায় তাকে আর বাকি সাজা খাটতে হবে না। তবে তাকে ৫০ লাখ টাকার অর্থদণ্ড দিয়েছেন হাইকোর্ট। অনাদায়ে এক বছরের কারাদণ্ডেরও আদেশ দেয়া হয়েছে।

এছাড়া জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে হাফিজ ইব্রাহিমকে খালাস দেয়া হয়েছে বলেও জানান অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক (১/১১-এর) সরকারের আমলে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এ মামলা করে। মামলায় ২০০৮ সালের ১৯ জুন হাফিজ ইব্রাহিমকে মোট ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। আপিলের পর হাইকোর্ট হাফিজ ইব্রাহিমকে খালাস দেন।

খালাসের বিরুদ্ধে দুদকের আপিলের পর আপিল বিভাগ খালাসের রায় বাতিল করে পুনরায় শুনানির জন্য হাইকোর্টে পাঠান। এর বিরুদ্ধে হাফিজ ইব্রাহিম রিভিউ করলে সেটিও খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ।

পরে আপিল বিভাগের আদেশ মতে হাইকোর্ট বিভাগে মামলার পুনঃশুনানি অনুষ্ঠিত হয়। পুনঃশুনানি শেষে আদালত আজ এই রায় ঘোষণা করেন।

এফএইচ/জেএইচ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :