বিশেষ আইনে জামিন : বৃহত্তর বেঞ্চে নিষ্পত্তির মত হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫১ পিএম, ০৪ এপ্রিল ২০১৮

বিশেষ আইনে দায়ের করা মামলার বিচার শুরুর আগে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জামিন দেয়ার এখতিয়ার আছে কিনা- এ প্রশ্নে মামলা নিষ্পত্তির জন্য বৃহত্তর বেঞ্চ গঠনের পক্ষে মত দিয়েছেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে দুর্নীতি মামলায় এবি ব্যাংকের দুই কর্মকর্তার মামলার নথি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানো হয়েছে।

অর্থপাচার মামলায় এবি ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে জামিনের বিরুদ্ধে জারি করা রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে এবি ব্যাংকের দুই কর্মকর্তার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আসাদুর রউফ। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

শুনানিতে আদালত বলেন, ‘বিশেষ আইনের মামলায় হাইকোর্টের বেশ কয়েকটি বেঞ্চ পৃথক পৃথক আদেশ দিয়েছে। কলকাতা হাইকোর্টের একটি নজিরে আমরা দেখেছি, ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট এ ধরনের মামলায় জামিন দিতে পারে না। তবে আমাদের আপিল বিভাগের কোনো সিদ্ধান্ত খুঁজে পায়নি। তাই বিষয়টি বৃহত্তর বেঞ্চে নিষ্পত্তি হওয়া প্রয়োজন।’

আদালত বলেন, ‘জামিনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত পরে, আগে আইনি বিষয় নিষ্পত্তি হোক।’ তবে আইনজীবীরা জানিয়েছেন, এবি ব্যাংকের দুই কর্মকর্তার জামিন স্থগিত না করায় তাদের জামিন বহাল রয়েছে।
গত ২৫ জানুয়ারি ১৬৫ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে নগরীর মতিঝিল থানায় একটি মামলা করে দুদক। ওই মামলায় এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান এম ওয়াহিদুল হক ও আবু হেনা মোস্তফা কামালকে জামিন দেয় ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

তবে ব্যবসায়ী সাইফুল হককে জামিন না দিয়ে রিমান্ডে পাঠায় একই আদালত। বিষয়টি নজরে আসায় গত ৩১ জানুয়ারি হাইকোর্ট ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জামিন আদেশ কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন।

সঙ্গে সঙ্গে তারা যাতে বিদেশে পালাতে না পারেন, সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দুর্নীতি দমন কমিশনকে নির্দেশ দেয়া হয়। এছাড়া ওই মামলার নথি হাইকোর্টে পাঠাতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতকে নির্দেশ দেন আদালত। ওই রুলের শুনানিতে আদালত আজ বৃহত্তর বেঞ্চ গঠনের সুপারিশ করেন।

এফএইচ/এমএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :